Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৩ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

শুরু চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি: অস্ট্রেলিয়া, পাকিস্তানের হার

শেষ মিনিটের গোলে ডুবলেন সর্দাররাও

সংবাদ সংস্থা
ভুবনেশ্বর ০৭ ডিসেম্বর ২০১৪ ০১:৪১
সর্দারদের খারপ দিন। শনিবার জার্মানির বিরুদ্ধে ভুবনেশ্বরে। ছবি: এপি

সর্দারদের খারপ দিন। শনিবার জার্মানির বিরুদ্ধে ভুবনেশ্বরে। ছবি: এপি

অঘটনের দিনেও ব্যতিক্রমই রয়ে গেল ভারতীয় হকি দল। জার্মানির বিরুদ্ধে ঘরের মাঠে চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি অভিযানের প্রথম ম্যাচেই ০-১ হারল ভারত।

গোটা ম্যাচে বিশ্বের তিন নম্বর দলকে আটকে রাখা তো বটেই, বেশ কয়েকটা গোলের সুযোগ তৈরি করলেও শেষ মিনিটে গোল খাওয়াটাই কাল হয়ে দাঁড়ায় ভারতের। অথচ ম্যাচের গোড়ার দিকে সর্দারদের আগ্রাসী হকির সামনে কিছুটা গুটিয়েই ছিলেন জার্মানরা। আকাশদীপ, রুপিন্দর পাল সিংহরা জার্মান ডিফেন্সে ঝড় তুলে দিয়েছিলেন।

প্রতিআক্রমণে জার্মানি অবশ্য পেনাল্টি কর্নারও আদায় করে নিচ্ছিল। যার প্রথমটাই জার্মানরা পায় ম্যাচের আট মিনিটে। কিন্তু ভারতীয় ডিফেন্স আর গোলকিপার শ্রীজেশের দাপটে দাঁত ফোটাতে পারেননি জার্মানরা। কিছুক্ষণ পরই পাল্টা পেনাল্টি কর্নার পায় ভারতও। কিন্তু তাতে লাভ হয়নি। বিরতির পরও আগ্রাসী হকির স্ট্র্যাটেজি ধরে রেখেছিলেন সর্দাররা। বিশেষ করে জার্মানির ‘ডি’-র ভিতরে ভারতীয় ফরোয়ার্ডরা দাপটও ছিল চোখে পড়ার মতো, কিন্তু ফিনিশিংয়ের অভাবে আক্রমণের প্রয়াস ব্যর্থ হচ্ছিল বারবার।

Advertisement

যে ভাবে সর্দাররা জার্মানদের আক্রমণ ঠেকিয়ে পাল্টা আগ্রাসনের কৌশল নিয়েছিলেন তাতে শেষ পর্যন্ত হয়তো ম্যাচ ড্র হত। কিন্তু ম্যাচ শেষ হওয়ার ৪০ সেকেন্ড আগে শ্রীজেশকে কাটিয়ে বল পেয়ে যান জার্মানির ফ্লোরিয়ান ফুচ। জালে ঠেলতে ভুল করেননি তিনি। ভারতের জয়ের আশা ওখানেই শেষ। রবিবার ভারতের লড়াই দ্বিতীয় ম্যাচে আর্জেন্তিনার বিরুদ্ধে। যারা এ দিন নেদারল্যান্ডসের কাছে ০-৩ হারে।

চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে দিনটা কিন্তু অঘটনেরই ছিল। দিনের প্রথম দু’ম্যাচেই সেটা স্পষ্ট করে অস্ট্রেলিয়া আর পাকিস্তানের হারে। ছ’নম্বর চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফি জয়ের আশায় শুরুতেই বড় ধাক্কা খায় অস্ট্রেলিয়া। প্রথম ম্যাচে ইংল্যান্ডের কাছে ১-৩ হারে তারা। বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা ছ’মিনিটেই ব্যাকফুটে চলে যায় ইংল্যান্ডের অ্যালেস্টার ব্রোগডনের গোলে। ২৭ মিনিটে ২-০ করেন ইংল্যান্ডের স্যাম ওয়ার্ড। বিরতির পর অজিদের হয়ে ব্যবধান কমান ক্রিস সিরিএলো। সমতা ফেরানোর লক্ষ্যে অজিরা মরিয়া চেষ্টা চালালেও ম্যাচ শেষ হওয়ার তিন মিনিট আগে ওয়ার্ড নিজের দ্বিতীয় গোল করে সেই আশায় জল ঢেলে দেন।

প্রথম দিনই হারল তিন বারের চ্যাম্পিয়ন পাকিস্তানও। বেলজিয়াম ২-১ হারায় মহম্মদ ইমরানদের। ১০ মিনিটে কসিন্স এগিয়ে দেন বেলজিয়ামকে। ৩৬ মিনিটে পাকিস্তানকে সমতায় ফেরান অধিনায়ক ইমরান। কিন্তু সাত মিনিট পরেই পাকিস্তানকে ফের পিছিয়ে দেন টমাস ব্রিয়েলস। যে ব্যবধান আর কমাতে পারেনি পাকিস্তান। তবে হারলেও পাকিস্তানের কোচ শেখ শেহনাজ দলের পারফরম্যান্সে খুশি। “ছেলেরা যতটা সম্ভব চেষ্টা করেছে। তবে দু’টো পেনাল্টি কর্নার-সহ ক’য়েকটা সুযোগও নষ্ট করেছি আমরা।”

আরও পড়ুন

Advertisement