Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১২ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

মুম্বই পুলিশের রিপোর্ট নিয়ে জোর জল্পনা

শ্রীনির ভাগ্য ঠিক হতে পারে আজ

অস্ট্রেলিয়ায় ধোনি বাহিনীকে বাইশ গজে যতটা আক্রমণ সামলাতে হচ্ছে, তার চেয়ে বেশি বাউন্সার কি খেলতে হবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সর্বময় কর্তাকে? না

নিজস্ব প্রতিবেদন
২২ জানুয়ারি ২০১৫ ০৩:৪০
Save
Something isn't right! Please refresh.
সুপ্রিম কোর্টের দু’নম্বর কক্ষে কী অপেক্ষা করে আছে শ্রীনি, সিএসকে-র জন্য?

সুপ্রিম কোর্টের দু’নম্বর কক্ষে কী অপেক্ষা করে আছে শ্রীনি, সিএসকে-র জন্য?

Popup Close

অস্ট্রেলিয়ায় ধোনি বাহিনীকে বাইশ গজে যতটা আক্রমণ সামলাতে হচ্ছে, তার চেয়ে বেশি বাউন্সার কি খেলতে হবে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সর্বময় কর্তাকে? নাকি লক্ষ্মীবারে হাসি ফুটবে নারায়ণস্বামী শ্রীনিবাসনের মুখে?

আজ বৃহস্পতিবার, দুপুর দুটোর পর যে প্রশ্নের উত্তর পাওয়ার জন্য অপেক্ষা করে থাকবে ক্রিকেটমহল। কারণ, আইপিএল ফিক্সিং কেলেঙ্কারি নিয়ে বৃহস্পতিবার রায় দিতে পারে সুপ্রিম কোর্ট।

দুপুর দু’টোয় সুপ্রিম কোর্টের দু’নম্বর কক্ষে ক্রিকেট বিশ্বে সবচেয়ে আলোড়ন ফেলা কেলেঙ্কারির মামলায় ফয়সালা শোনানোর কথা বিচারকদের। সত্যিই আইপিএলে ম্যাচ গড়াপেটা হয় কি না, তাতে বোর্ডের শীর্ষকর্তারা জড়িয়ে আছেন কি না, তারকা ক্রিকেটারদের এতে কোনও ভূমিকা আছে কি না প্রশ্ন অনেক। আর সবথেকে বড় প্রশ্নটা তাঁকে এবং তাঁর ফ্র্যাঞ্চাইজি ঘিরে— শ্রীনিবাসনের ভাগ্যে কী আছে? চেন্নাই সুপার কিংসেরই বা কী হতে পারে? যাবতীয় প্রশ্নের জবাব পাওয়া যেতে পারে আজ। যদি কেলেঙ্কারি ফাঁস হওয়ার প্রায় দেড় বছর পর বৃহস্পতিবার বিচারকরা এই মামলার রায় দেন।

Advertisement

ভারতীয় ক্রিকেট প্রশাসনের যাবতীয় ভবিষ্যৎ পরিকল্পনা, এমনকী আইপিএলের ভবিষ্যতও এই মামলার রায়ের দিকে তাকিয়ে। মামলাকারী বিহার ক্রিকেট সংস্থার সচিব আদিত্য বর্মার দাবি, “ভারতীয় ক্রিকেটের এক ঐতিহাসিক দিন হতে চলেছে বৃহস্পতিবার। যে দিন দেশের ক্রিকেট থেকে অশুভ শক্তি সরে গিয়ে শুভ শক্তির আগমন ঘটবে।”

কিন্তু সংবাদসংস্থা জানিয়েছে, দু’দিন আগেই মুম্বই পুলিশ যে রিপোর্ট আদালতকে দিয়েছে, তাতে সাফ বলা হয়েছে, আইপিএলে ম্যাচ গড়াপেটার কোনও প্রমাণ তাদের কাছে নেই। সমাজসেবী নরেশ মাকানি ২০১৩-র মে মাসে আদালতে অভিযোগ করেন, সে বছরের আইপিএলে সব ম্যাচই গড়াপেটা হয়েছে। এর পরিপ্রেক্ষিতে চলা মামলায় মুম্বই পুলিশের এই রিপোট। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের আইনজীবীরা মুম্বই পুলিশের এই রিপোর্টকেই অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন বলে বোর্ডসূত্রের খবর।

মুকুল মুদগল কমিটির রিপোর্টেও শ্রীনিবাসনের জামাই গুরুনাথের বিরুদ্ধে গড়াপেটার কোনও তথ্যপ্রমাণ পাওয়া যায়নি বলে উল্লেখ রয়েছে। ফলে শ্রীনিবাসনও এই অভিযোগ থেকে মুক্ত হতে পারেন। কিন্তু যে বিষয়টি নিয়ে শ্রীনিবাসনের উপর যথেষ্ট আপত্তি জানিয়েছে সর্বোচ্চ আদালত, তা হল স্বার্থসংঘাত। যার জেরে দেশের সর্বোচ্চ আদালত বিসিসিআই-এর শীর্ষ পদ ও চেন্নাই সুপার কিংসের মালিকানার মধ্যে যে কোনও একটিকে বেছে নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছে শ্রীনিবাসনকে। বৃহস্পতিবার হয়তো এই পরামর্শই নির্দেশে পরিণত হতে পারে বলে কেউ কেউ মনে করছেন।

মুখবন্ধ খামে যে কয়েকজন অভিযুক্তের নাম দেওয়া হয়েছিল, তাঁদের মধ্যে কয়েকজন তারকা ক্রিকেটারও আছেন বলে অভিযোগ। তাঁরা কারা, তা প্রকাশ করার আবেদন আদালতের কাছে বারবার করেছে মামলাকারী বিহার ক্রিকেট সংস্থা। কিন্তু এখন পর্যন্ত সেই আবেদন গ্রাহ্য করেনি আদালত। রায় দেওয়ার সময় সেই নামগুলি প্রকাশ করা হয় কি না, সেটা যেমন দেখার বিষয়, তেমনই দেখার, যে সংশ্লিষ্টদের ক্রিকেট জীবন এর জন্য কী ভাবে প্রভাবিত হতে পারে। ভারতীয় দলের চলতি অস্ট্রেলিয়া সফরে থাকা কয়েক জন ক্রিকেটারও অভিযুক্তদের তালিকায় থাকতে পারেন বলে ক্রিকেট মহলের একাংশের ধারণা। সত্যিই যদি তা হয়, তা হলে তাঁদের আদালতের নির্দেশে দেশে ফিরিয়ে আনতে হয় না কি না, সেটাও একটা বড় প্রশ্ন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement