Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

বুফোঁর বিবাহ বিচ্ছেদ অশান্তি ইতালির সংসারে

নিজস্ব প্রতিবেদন
২১ মে ২০১৪ ০২:৫৭
তখন সুখের দিন

তখন সুখের দিন

আন্দ্রে পির্লো ও জিয়ানলুইগি বুফো।ঁ ইতালীয় ফুটবলের দুই স্তম্ভ। যাঁরা ২০০৬ বিশ্বকাপজয়ী দলের দুই অস্ত্র ছিলেন। এ বারও ইতালির মিশন বিশ্বকাপে এই দু’জনই প্রধান ভরসা। কিন্তু ব্রাজিল যাত্রার আগে দুই তারকার ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে তোলপাড় ইতালীয় ফুটবল।

প্রায় এক বছর আগে থেকেই আলিনা সেরিডোভার সঙ্গে ঝামেলা শুরু বুফোঁর। টিভি ভাষ্যকার ইলারিয়া দি’আমিকোর সঙ্গে জুভেন্তাস তারকার অবৈধ সম্পর্কই কারণ হিসাবে বেরিয়ে আসে সেই ঝামেলার। বর্তমানে স্ত্রীর থেকে দূরে নিজের আইনজীবীর বন্ধুর সঙ্গে থাকছেন জুভেন্তাসের হয়ে সিরি এ জেতা বুফোঁ। কিন্তু ইতালির বিশ্বকাপ অভিযান শুরু করার কয়েক দিন আগেই তিনি জেনে গেলেন যে আলিনার সঙ্গে তাঁর কোনও ভবিষ্যৎ নেই। সিদ্ধান্তও নিয়ে ফেললেন বিবাহ বিচ্ছেদের।

কিন্তু তাতেও সমস্যা শেষ হচ্ছে না বুফোঁর। ইতালির গোলকিপার মনে করেন, তাঁর দুই সন্তান মাঠে থাকলে সেটা তাঁর পক্ষে শুভ হয়। তাই বুফোঁ চেয়েছিলেন, বিশ্বকাপেও যাক তারা। কিন্তু আলিনা রাজি নন। শোনা যাচ্ছে, বিয়ে ভাঙার কারণে বুফোঁর উপর এতটাই রেগে আছেন আলিনা যে তিনি জানিয়ে দিয়েছেন, কোনও মতেই দুই পুত্র ডেভিড লি এবং লুইকে অনুমতি দেবেন না ব্রাজিল যাওয়ার। যা জানার পর যন্ত্রণাকাতর বুফোঁ বলেন, “আমি চেয়েছিলাম ব্রাজিল আসুক আমার দুই ছেলে। খুবই ভাল হত তাহলে। কিন্তু এটাও মনে রাখতে হবে যে আমার আর আলিনার ঝামেলায় যেন বাচ্চারা জড়িয়ে না পড়ে। ওদের শান্তিপূর্ণ ভাবে বড় করে তোলার দায়িত্ব আমাদের।” আলিনার সঙ্গে সরকারি ভাবে ডিভোর্সের কয়েক দিন পরেই একসঙ্গে বসে ইউরোপা লিগ ফাইনাল ম্যাচও দেখেন বুফো।ঁ যদিও দু’জনের মধ্যে তফাত ছিল চার-পাঁচটা সিটের। কিন্তু তাঁর আমন্ত্রণে নয়, নিজের ইচ্ছায় মাঠে এসেছিলেন আলিনা, সেই কথা জানিয়ে বুফোঁ বলেন, “আমি ডাকিনি আলিনাকে। ও বাচ্চাদের নিয়ে মাঠে এসেছিল।”

Advertisement

বিশ্বকাপের কয়েক দিন আগেও ভিতর ভিতর আর এক লড়াই করছেন বুফোঁ। ইতালির ‘জিজি’ বলেন, “এখনও কিছুই ভুলতে পারিনি। তবে ধন্যবাদ জানাব আলিনাকে। এই কঠিন পরিস্থিতিতেও ও চাইলে আরও বেশি সমস্যা তৈরি করতে পারত।”

বুফোঁর বিবাহ বিচ্ছেদের খবর শুনে স্তম্ভিত ইতালি কোচ সিজার প্রান্দেলি। মঙ্গলবার ফ্লোরেন্সে বিশ্বকাপের জন্য অনুশীলন শিবির শুরু করল ইতালি। এই খবরটা সম্পূর্ণ অপ্রত্যাশিত ছিল জানিয়ে প্রান্দেলি বলেন, “বিবাহ বিচ্ছেদ সব সময় খুব খারাপ। জিজির মতো এত ভাল একজন ফুটবলার এ রকম কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। আমি তো অবাক শুনে যে ওর বিয়ে ভেঙে গেছে।”

ঠিক বুফোঁর মতোই আবার বছরের শুরুতে ১২ বছরের বিয়ে ভাঙে ইতালির মাঝমাঠ তারকা আন্দ্রে পির্লোর। দেবোরা রভার্সির সঙ্গে পুরনো প্রেম ভাঙার কারণ হিসাবে বেরিয়ে এসেছে পির্লোর বিবাহ বহির্ভূত সম্পর্ক। এমনকী সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটেও অনেক অপরিচিত মেয়ের সঙ্গে ‘চ্যাট’ করার অভিযোগ আনা হয়েছে পির্লোর বিরুদ্ধে। এও বলা হচ্ছে যে, মাঠের বাইরের ঘটনার প্রভাব পড়তে পারে পির্লোর খেলার উপর।

কিন্তু ব্যক্তিগত জীবন নিয়ে সমস্যা থাকলেও, ইতালির ক্ষেত্রে লক্ষ্যে স্থির বুফো।ঁ বলে দিলেন, বিপক্ষ দলের প্রাণ বেরিয়ে যাবে ইতালিকে হারাতে হলে। “ইতালি একটা ভাল দল, যারা খুব সহজে হারে না। এটুকু বলতে পারি অন্যদের ঘাম ঝরাতে হবে আমাদের হারাতে হলে।”



আরও পড়ুন

Advertisement