Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৪ অক্টোবর ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

অদিতির ইতিহাস, শিবশঙ্করের ট্রফিতে গল্ফে সুপার সানডে

প্রথম ভারতীয় হিসাবে মেয়েদের ইউরোপীয় ট্যুরে খেতাব জিতে ইতিহাস গড়লেন অদিতি অশোক। শিবশঙ্কর প্রসাদ চৌরাসিয়া আবার ত্রিমুখী প্লে-অফে বিদেশের মাটি

নিজস্ব প্রতিবেদন
১৪ নভেম্বর ২০১৬ ০৩:৪৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
ইউরোপীয় ট্যুরে খেতাব জিতে ইতিহাস গড়লেন অদিতি অশোক। ছবি: পিটিআই

ইউরোপীয় ট্যুরে খেতাব জিতে ইতিহাস গড়লেন অদিতি অশোক। ছবি: পিটিআই

Popup Close

দেশে-বিদেশে গল্ফ কোর্সে দুই অলিম্পিয়ানের দুর্দান্ত সাফল্য। যার জেরে ভারতীয় গল্ফে দিনটা পাকাপাকি হয়ে থাকল সুপার সানডে!

প্রথম ভারতীয় হিসাবে মেয়েদের ইউরোপীয় ট্যুরে খেতাব জিতে ইতিহাস গড়লেন অদিতি অশোক। শিবশঙ্কর প্রসাদ চৌরাসিয়া আবার ত্রিমুখী প্লে-অফে বিদেশের মাটিতে নাটকীয় ভাবে নিজের প্রথম খেতাব জিতে সাড়া ফেললেন। প্রথমটা গুরগাঁওয়ে, মেয়েদের হিরো ইন্ডিয়া ওপেনে। পরেরটা ম্যানিলায়, এশীয় ট্যুরের দশ লক্ষ মার্কিন ডলার পুরস্কার মূল্যের টুর্নামেন্ট, রিসর্টস ওয়ার্ল্ড ম্যানিলা মাস্টার্সের আসরে। যা এই মরসুমে শিবশঙ্করের দ্বিতীয় এশীয় ট্যুর খেতাব।

ক’সপ্তাহ আগে অলিম্পিক্সের গল্ফ কোর্স থেকে দু’জনই ফিরেছিলেন শূন্য হাতে। অদিতির আফসোসটা বেশিই ছিল সম্ভবত। রিওয় প্রথম দুই রাউন্ড চলাকালীন একটা সময় পযর্ন্ত তো মনে হয়েছিল, রীতিমতো পদক-যুদ্ধে আছেন। তবে পরের দু’রাউন্ডে পিছিয়ে পড়ে ভিক্ট্রি স্ট্যান্ডে ওঠা হয়নি তাঁর। পুসারলা বেঙ্কট সিন্ধু, সাক্ষী মালিক, দীপা কর্মকাররা রিওয় ভারতীয় খেলাধুলোয় নারী শক্তির পতাকাটা যখন শক্ত হাতে তুলে ধরছিলেন, পাশে দাঁড়িয়ে দেখতে হয়েছিল অদিতিকে। তবে বেঙ্গালুরুর অষ্টাদশী রিও থেকে যেন বাড়তি অনুপ্রেরণা নিয়ে ফেরেন। রিওয় যা পারেননি, এ দিন নিজের দেশের মাটিতে সেটাই করে দেখালেন গল্ফের সবুজ ঘাসে সগর্ব বিজয় ঘোষণায়।

Advertisement

দু’শটে এগিয়ে থেকে তৃতীয় রাউন্ড শেষ করার পর এ দিন পার ৭২ স্কোরই অদিতিকে ট্রফি ও বিজয়ীর প্রায় ৫৫ হাজার ইউরোর চেক এনে দিল। তাঁর স্কোর তিন-আন্ডার ২১৩। অদিতির সাফল্যে উচ্ছ্বসিত ম্যানিলার খেতাবজয়ীও। শিবশঙ্কর প্রসাদ চৌরাসিয়াকে মোবাইলে যোগাযোগ করলে বললেন, ‘‘অদিতি জেতায় আমি অসম্ভব খুশি। দারুণ খবর।’’ রিওয় ভারতীয় গল্ফ টিমের তৃতীয় সদস্য অনির্বাণ লাহিড়ী আবার পিজিএ ট্যুরে খেলার ফাঁকেই টুইট করেন, ‘‘সাবাশ অদিতি আর এসএসপি। ভারতীয় হিসাবে আলাদা গর্ব হচ্ছে। এ ভাবেই এগিয়ে চলো!’’

পাঁচ ফুট আট ইঞ্চির ছিপছিপে মেয়ে বেঙ্গালুরুর ফ্র্যাঙ্ক অ্যান্টনি পাবলিক স্কুল থেকে পাশ করে বেরিয়েছেন এ বছরেই। পেশাদার হওয়াও এই জানুয়ারিতে। তার পর থেকেই মেয়েদের গল্ফে চাঞ্চল্য তৈরি করেই চলেছেন। জুনে সবচেয়ে কমবয়সী হিসাবে ইউরোপীয় ট্যুরে খেলার যোগ্যতা অর্জন করে ইতিহাস গড়েন। অলিম্পিক্সের যোগ্যতা অর্জনটাও ইতিহাস। এ দিন ইউরোপীয় ট্যুরে জিতলেন ভারতীয় হিসাবে ঐতিহাসিক প্রথম খেতাব। ইতিহাস গড়াটাই যেন অভ্যাস!



ম্যানিলায় জিতলেন এসএসপি চৌরাসিয়া। ছবি: পিটিআই

সাড়ে পাঁচ বছর বয়সে গল্ফস্টিক হাতে তুলে নেন। পেশাদার গল্ফ খেলার স্বপ্ন দেখতেন কৈশোর থেকেই। জুনিয়র পর্যায়েও অসম্ভব ধারাবাহিক ছিলেন অদিতি। ২০১৩ যুব এশিয়ান গেমস , ২০১৪ যুব অলিম্পিক্স ও এশিয়ান গেমসে দেশের প্রতিনিধিত্ব করেন। অপেশাদার হিসাবে ছিলেন বিশ্বের এগারো নম্বর। তবে পেশাদার হওয়ার পর, বিশেষ করে অলিম্পিক্স পরবর্তী পারফরম্যান্স রীতিমতো চোখ ধাঁধানো অদিতির। রিও গেমসের পরের সপ্তাহেই মহিলাদের পিজিএ ট্যুরে যোগ্যতা অর্জনের টুর্নামেন্টের প্রথম পর্বে কুড়িতম হন। তার পর ইউরোপীয় ট্যুরে পর পর তিন টুর্নামেন্টে শেষ করেন প্রথম দশে। যার সুবাদে ইউরোপীয় ট্যুরে তাঁর র‌্যাঙ্কিং দাঁড়ায় ২৬। বিশ্ব র‌্যাঙ্কিং ২৮৯। হিরো ইন্ডিয়া ওপেন জেতায় দুই র‌্যাঙ্কিংয়ে এক লাফে অনেকটা উঠে আসবেন।

অন্য দিকে, ম্যানিলায় শিবশঙ্করের খেতাব এল পিছন থেকে উঠে এসে দমবন্ধ চাপের মুখে স্নায়ু ধরে রাখার যুদ্ধ জিতে। এ দিন শেষ রাউন্ডে নিজের সেরাটা বের করে স্কোর করেন ছয়-আন্ডার ৬৬। যা তাঁকে খেতাবের ত্রিমুখী যুদ্ধে পৌঁছে দেয় মালয়েশিয়ার নিকোলাস ফুং এবং যুক্তরাষ্ট্রের স্যাম চেনের সঙ্গে। তিন জনেই ছিলেন উনিশ-আন্ডার ২৬৯ স্কোরে। প্লে অফে শুরুতেই ফুং ছিটকে যান, দ্বিতীয় রাউন্ড জেতেন কলকাতার তারকা। যিনি দেশের বাইরে নিজের প্রথম এশীয় ট্যুর খেতাবে অসম্ভব খুশি। বলেছেন, ‘‘বারবার শুনতে হচ্ছিল, ভারতে তো অনেক জিতেছ। এ বার বিদেশে জিততে হবে। সেটা পেরে আসাধারণ অনুভূতি হচ্ছে। স্বস্তিও লাগছে।’’ এর আগেও প্লে অফে হারা এবং জেতা, দুই অভিজ্ঞতাই ছিল । যা এ দিন সাহায্য করে। শিবশঙ্করের কথায়, ‘‘জানতাম মাথা ঠান্ডা রাখতে পারাটা হার জিত ঠিক করে দেবে। আসল সময় সেটা পেরেছি ভেবে ভাল লাগছে।’’ এ মাসেই বিশ্ব গল্ফ চ্যাম্পিয়নশিপে নামবেন শিবশঙ্কর। তার আগে এই ট্রফিটা তাঁর আত্মবিশ্বাসও বাড়াল।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement