Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৬ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

মুখ্য নির্বাচক নিয়ে নাটক সিএবি-তে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১২ সেপ্টেম্বর ২০১৪ ০৪:০৯

বাংলার মুখ্য নিবার্চক কে হচ্ছেন?

সম্বরণ বন্দ্যোপাধ্যায় হচ্ছেন, না হচ্ছেন না?

সরাসরি উত্তর নেই। বরং বাংলার আগামী নির্বাচন কমিটির প্রধান বাছা নিয়ে নাটক শুরু হয়ে গেল সিএবি-তে। যা বৃহস্পতিবার দিনভর চলল।

Advertisement

গত রাত পর্যন্ত ঠিক ছিল যে, বাংলার রঞ্জিজয়ী অধিনায়কই নতুন নির্বাচন কমিটির প্রধান হচ্ছেন। ঝামেলা বাঁধে আজ, বৃহস্পতিবার সেটা মিডিয়ায় প্রকাশিত হওয়ার পর। শোনা গেল, যা নিয়ে নাকি তিরস্কারের মুখে পড়তে হয় সম্বরণকে। তাঁর নাম গোপন রাখার পরেও কী ভাবে মিডিয়ার কাছে বেরিয়ে গেল, সেটাই নাকি সমস্যার কারণ। যদিও কেউ কেউ মনে করছেন, এর জন্য সম্বরণ দায়ী নন।

বাংলার নির্বাচক প্রধান হিসেবে দীপ দাশগুপ্ত-র মেয়াদ এ বছরই শেষ হয়ে গেল। সম্বরণ যে জায়গায় আসবেন বলে একপ্রকার নিশ্চিত ছিল বুধবার পর্যন্ত। এ দিন রাতের দিকে সিএবি-র কোনও কোনও উচ্চপদস্থ কর্তা বলছিলেন, সম্বরণ এর পরেও অ্যাডভান্টেজ পজিশনে থাকবেন। তাঁকে রেখে যদি শেষ পর্যন্ত নির্বাচন কমিটি হয়, তা হলে মুখ্য নির্বাচকের পদে তিনিই প্রধান দাবিদার এখনও। অতীতে সম্বরণ বাংলার নির্বাচক প্রধান তো বটেই, জাতীয় নির্বচকও ছিলেন। কিন্তু এটাও বলা হচ্ছে যে, মুখ্য নির্বাচক হিসেবে সম্বরণের নাম বুধবার রাত পর্যন্ত যতটা নিশ্চিত ছিল, এ দিনের ঘটনার পর সেখানে একটা আশঙ্কাও জুড়ে থাকল। সিএবি প্রেসিডেন্ট জগমোহন ডালমিয়ার কাছেও এ দিন সম্বরণের নাম উত্থাপন করা হয় মুখ্য নির্বাচক হিসেবে। শোনা গেল, সিএবি প্রেসিডেন্ট বলেছেন যে তিনি সিনিয়র কর্তাদের সঙ্গে কথা বলে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেবেন।

কমিটির বাকি নির্বাচকদের নিয়েও কোথাও কোথাও ধোঁয়াশা থাকছে। পুরনো কমিটি থেকে সতিন্দর সিংহ-র মেয়াদ শেষ হয়ে গিয়েছে। ইন্দুভূষণ রায়ের আর এক বছর বাকি। অলোক ভট্টচার্য-রও টার্ম শেষ হয়নি। এ দিন রাত পর্যন্ত যা খবর, ইন্দুভূষণ পুরো মেয়াদ শেষ করছেন। কিন্তু অলোক ভট্টাচার্য অসুস্থ বলে তাঁর জায়গায় নতুন কাউকে আনা হতে পারে। দীপ দাশগুপ্ত-র মেয়াদ শেষ হলেও তাঁকে আরও একটা টার্ম রেখে দিতে চাইছে সিএবি-র একটা অংশ। সিএবি প্রেসিডেন্টও নাকি ইচ্ছুক দীপকে নিয়ে। কিন্তু সিএবির গঠনতন্ত্র মেনে পরপর দু’টো টার্ম কাউকে রাখা সম্ভব কি না তা নিয়ে একটা জট আছে বলে শোনা যাচ্ছে। সতিন্দরের জায়গায় প্রথমে ভাবা হয়েছিল গোপাল বসুর নাম। কিন্তু বাংলার প্রাক্তন অধিনায়ক নির্বাচন কমিটিতে আসতে চান না বলে জানিয়েছেন। তিনি এই মুহূর্তে কোচিংয়ে থাকতে পছন্দ করছেন। তাই ওই জায়গায় আপাতত তিনটে নাম শোনা যাচ্ছে। মলয় বন্দ্যোপাধ্যায়, শরদিন্দু মুখোপাধ্যায় এবং উদয়ভানু বন্দ্যোপাধ্যায়।

আরও পড়ুন

Advertisement