×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৭ মে ২০২১ ই-পেপার

বিশ্বকাপে পাকিস্তান ম্যাচ না খেলার দাবি এ বার বোর্ডকর্তাদের মুখেও

নিজস্ব প্রতিবেদন
মুম্বই ১৯ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ ১২:০৮
বিশ্বকাপে ১৬ জুন কোহালি বনাম সরফরাজ কি দেখা যাবে?

বিশ্বকাপে ১৬ জুন কোহালি বনাম সরফরাজ কি দেখা যাবে?

বর্ষীয়ান ক্রিকেটার হরভজন সিং আগেই বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ম্যাচ বয়কটের দাবি জানিয়েছেন। পুলওয়ামায় জঙ্গি হানার পরিপ্রেক্ষিতে বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে না খেলার দাবি ক্রমশ জোরাল হচ্ছে। এ বার ভারতীয় ক্রিকেট কন্ট্রোল বোর্ডের প্রাক্তন সচিব সঞ্জয় প্যাটেলও এই সুরে গলা মিলিয়েছেন।

ইংল্যান্ডে বিশ্বকাপের রাউন্ড রবিন লিগে ১৬ জুন ম্যাঞ্চেস্টারে মুখোমুখি হওয়ার কথা ভারত-পাকিস্তানের। কিন্তু, সেই ম্যাচ পাকিস্তানকে ওয়াকওভার দেওয়ার পক্ষে জনমত ক্রমশ বাড়ছে।

ক্রিকেটারদের পাশাপাশি বোর্ডেও এমন মনোভাব পোষণ করছেন কর্তারা। প্রাক্তন বোর্ড সচিব সঞ্জয় প্যাটেল যেমন সাফ বলেছেন, “কাপুরুষের মতো জঙ্গি হানায় আমরা যখন এত ভাইকে হারিয়েছি, তখন কী ভাবে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারত খেলবে বলে আশা করা যায়? আসন্ন বিশ্বকাপে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে ভারতের খেলা উচিত নয় বলে আমি মনে করি।” ক্রিকেট যে দেশের চেয়ে বড় নয়, সেটাই মনে করিয়ে দিয়েছেন তিনি। সঞ্জয় প্যাটেলের যুক্তি, “বিশ্বকাপে খেললে এই বার্তাই যাবে যে দেশের ভাবমূর্তির চেয়েও ক্রিকেট খেলাটা বড়। আমার কাছে সবার আগে দেশ। আর এই আবেগ যে শুধু আমারই, তা কিন্তু নয়। যে কোনও ভারতীয়ই এই মতামত পোষণ করেন। সন্ত্রাসবাদ থামলেই একমাত্র ক্রিকেট খেলা যেতে পারে। আশা করব প্রশাসকদের কমিটি ও বোর্ড এটা মাথায় রাখবে। সব কিছুরই একটা সীমা আছে। আর এ বার সব সীমা পেরিয়ে যাওয়া হয়েছে।”

Advertisement

আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে পাক বয়কটের ডাক হরভজনের​

আরও পড়ুন: প্রথম আইপিএল ফাইনালের দলের সদস্যরা আজ কোথায়

আইপিএল চেয়ারম্যান রাজীব শুক্লাও সন্ত্রাসবাদ বন্ধ না হলে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলার পক্ষপাতী নন। তিনি বলেছেন, “সবসময়ই ক্রিকেট আর রাজনীতিকে আলাদা করে দেখার কথা বলে এসেছি। কিন্তু, এখন ব্যাপারটা ক্রিকেটীয় সম্পর্কও ক্ষতিগ্রস্ত করছে। যতক্ষণ না পাকিস্তান সন্ত্রাসবাদকে উৎসাহ দেওয়া বন্ধ করছে, ততক্ষণ ক্রিকেটীয় সম্পর্ক হওয়া মুশকিল।” কিন্তু বিশ্বকাপে কি পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলা উচিত ভারতের? রাজীব শুক্লা বলেছেন, “বিশ্বকাপ এখনও অনেক দেরি। তাই পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলা উচিত হবে কিনা, তা নিয়ে এখনই বলা সম্ভব নয়। তবে আমাদের নীতি একেবারেই পরিষ্কার। আমরা সরকারের সিদ্ধান্তের জন্য অপেক্ষা করব।”

(আইসিসি বিশ্বকাপ হোক বা আইপিএল, টেস্ট ক্রিকেট, ওয়ান ডে কিংবা টি-টোয়েন্টি। ক্রিকেট খেলার সব আপডেট আমাদের খেলা বিভাগে।)

Advertisement