Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

চিপকে রাসেল ঝড় ভুলিয়ে ম্যাচ জিতল সুপার কিঙ্গস

টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলের এমএস ধোনি। ওপেন করতে নেমে ১২ রান করেই প্যাভেলিয়নে ফিরে যান প্রথম ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি করা সুনীল নারিন।

নিজস্ব প্রতিবেদন
১০ এপ্রিল ২০১৮ ২১:৩৮
কেকেআর-এর উইকেট নেওয়ার পর চেন্নাই শিবিরে উচ্ছ্বাস। ছবি: পিটিআই।

কেকেআর-এর উইকেট নেওয়ার পর চেন্নাই শিবিরে উচ্ছ্বাস। ছবি: পিটিআই।

চিপকের মাঠে ধাক্কা খেল কলকাতা নাইট রাইডার্স-এর বিজয় রথ। ২০২ রান করেও চেন্নাই সুপার কিঙ্গস-এর ব্যাটিং বিক্রমে হার মানতে হল কার্তিক বাহিনীকে। কাজে আসল না আন্দ্রে রাসেল-এর ঝোড়ো ৮৮ রানের ইনিংস। ১০৬৫ দিন বাদে চিপকের মাঠে খেলতে নামা সুপার কিঙ্গসরা ম্যাচ জিতল ৫ উইকেটে। দুই ম্যাচ জিতে এখন শীর্ষে সিএসকে।

২০২ রানের লক্ষ্য তাড়া করতে নেমে প্রথম থেকেই ব্যাটে ঝড় তুলতে থাকেন সিএসকে-র দুই ওপেনার শেন ওয়াটসন এবং অম্বাতি রায়াডু। ৫ ওভারেই ৭৫ রান তুলে নেয় চেন্নাই। এর পরই রান রেট কমে যায় তাঁদের। ১০ ওভারে চেন্নাই-এর রান ছিল ৯০/২। সুরেশ রায়না আউট হতেই ম্যাচে ফেরে চেন্নাই। ধোনি এবং স্যাম বিলিংস মারকাটারি ব্যাটিং শুরু করেন। পীযুুষ চাওলা-র বলে ধোনি আউট হলেও ম্যাচের রাশ ধরে নেন বিলিংস। ২৩ বলে ৫৬ রানের ইনি‌ংস উপহার দেন তিনি। ম্যাচের সেরাও নির্বাচিত হয়েছেন এই ব্যাটসম্যান। শেষ ওভারে চেন্নাই-এর জেতার জন্য দরকার ছিল ১৭ রান। শেষ দুই বলে দরকার ছিল ৪ রান। লং অনের উপর দিয়ে ছক্কা হাঁকিয়ে চেন্নাই-এর দ্বিতীয় জয় এনে দিলেন রবীন্দ্র জাডেজা।

চেন্নাইয়ের মাটিতে শুরুতেই ধাক্কা খেয়েছিল কেকেআর। আইপিএল-এর প্রথম ম্যাচে বিরাট বাহিনীকে ঘরের মাঠে উড়িয়েই যাত্রা শুরু করেছিল কলকাতা নাইট রাইডার্স। কিন্তু দ্বিতীয় ম্যাচে চেন্নাই সুপার কিংসের বিরুদ্ধে শুরুতেই ধাক্কা খেয়েছিল কলকাতা।

Advertisement

টস জিতে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছিলের এমএস ধোনি। ওপেন করতে নেমে ১২ রান করেই প্যাভেলিয়নে ফিরে যান প্রথম ম্যাচে হাফ সেঞ্চুরি করা সুনীল নারিন। আর এক ওপেনার ক্রিস লিন ফেরেন ২২ রান করে। এর পর কেকেআর ইনিংসের হাল ধরেন রবিন উথাপ্পা। তাঁর ব্যাট থেকে আসে ২৯ রান।

আরও পড়ুন: ‘শিখরে শুরুতেই সূর্যোদয়ের ছটা’

আরও পড়ুন: হিটম্যান এবার বন্দুকবাজ, হকি খেলবে আব্রাম

উথাপ্পা আউট হতেই পরপর ফিরে যান নীতিশ রানা এবং রিঙ্কু সিংহ। এর পর ক্রিজে আসেন মাসল্‌ ম্যান আন্দ্রে রাসেল। শুরু হয় রাসেল ঝড়। ৩৬ বলে ৮৮ করে অপরাজিত থাকেন রাসেল। এগারোটি বিশাল ছক্কা হাঁকান রাসেল। যোগ্য সঙ্গত দেন অধিনায়ক দীনেশ কার্তিক। ২০ ওভারে কেকেআরের রান সংখ্যা গিয়ে দাঁড়ায় ২০২।

কেকেআরের পরের ম্যাচ ১৪ এপ্রিল ঘরের মাঠে সানরাইজার্স হায়দরাবাদের বিরুদ্ধে।

আরও পড়ুন

Advertisement