Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ নভেম্বর ২০২১ ই-পেপার

শিবির ডিডি

কুড়ি কোটির দুই প্রাক্তন দিল্লি থেকে ভারত দেখছেন

নিজস্ব সংবাদদাতা
নয়াদিল্লি ০১ এপ্রিল ২০১৫ ০২:৫৬
নয়াদিল্লিতে নতুন জার্সিতে যুবরাজ, জাহির।

নয়াদিল্লিতে নতুন জার্সিতে যুবরাজ, জাহির।

দু’জনের পিছনে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসের খরচ হয়েছে কুড়ি কোটি টাকা। এবং আইপিএল আটের প্রথম বল পড়ার আট দিন আগে নিজেদের নতুন ফ্র্যাঞ্চাইজির এক অনুষ্ঠানে যুবরাজ সিংহ এবং জাহির খান, দু’জনের গলাতেই এক সুর—আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তাঁদের প্রত্যাবর্তনের উড়ান হিসেবে তাঁরা কোটি টাকার এই মেগা টি-টোয়েন্টি প্রতিযোগিতাকে এ বার যথাসাধ্য ব্যবহার করতে বদ্ধপরিকর। চার কোটির জাহিরের সঙ্গে দরের তুলনায় ষোলো কোটির যুবরাজ যতই চারশো শতাংশ এগিয়ে থাকুন, স্বপ্নের মাত্রা দুই প্রাক্তন ভারতীয় মহাতারকা ক্রিকেটারেরই সমান—ভারতীয় দলে আবার ঢোকা।

‘‘অবশ্যই হ্যাঁ,’’ বললেন যুবরাজ। তার পর আরও সবিস্তার হলেন চার বছর আগে বিশ্বকাপজয়ী ভারতীয় দলের ম্যান অব দ্য টুর্নামেন্ট, ‘‘ক্যানসারের সফল চিকিৎসা শেষে ভারতীয় দলে আমি ফিরে এলেও তার পর থেকে আন্তর্জাতিক মাঠে আমার সময়টা বেশ কঠিনই গিয়েছে। ফলে ক্যানসারকে জয় করলেও জাতীয় দল থেকে আবার ছিটকে পড়তে হয়। কিন্তু এখন আবার আমি খুব ভাল ক্রিকেটীয় কন্ডিশনে আছি। প্রচুর পরিশ্রম করেছি। সদ্য খুব ভাল একটা ঘরোয়া মরসুম কাটিয়েছি। এখনও কাটাচ্ছি। আমি আত্মবিশ্বাসী এখান থেকে আমি সামনের টুনার্মেন্টে আরও ভাল করব। আইপিএলে আমার আরও ভাল সময় যাবে। যেখান থেকে আমি আবার ভারতীয় দলে ফিরতে পারব।’’

যুবরাজকে আইপিএল ইতিহাসে সর্বোচ্চ টাকা দিয়ে কিনে দিল্লি ফ্র্যাঞ্চাইজি তাদের ‘ডেয়ারডেভিল’ মানসিকতা দেখানোর পর এ দিন টিমের নতুন স্পনসরকে আনুষ্ঠানিক ভাবে পরিচিত করে দেওয়ার মঞ্চে নিজেদের সেই আইকন ক্রিকেটারকে হাজির করাবে সেটাই স্বাভাবিক। চমক বরং যুবির পাশে দাঁড়ানো জাহির। ছিলেন দক্ষিণ আফ্রিকান অলরাউন্ডার অ্যালবি মর্কেল-ও। তিন জনেরই পরনে ডিডি-র নতুন ডিজাইনের জার্সি।

Advertisement

এবং বেশ কয়েক মরসুম পর মুম্বই ইন্ডিয়ান্স ছেড়ে আসা বছর ছত্রিশের বর্ষীয়ান পেসার জাহির প্রথমেই আনন্দ প্রকাশ করলেন, আবার গ্যারি কার্স্টেনের কোচিংয়ে খেলার সুযোগ পাচ্ছেন বলে। ২০১১ কাপজয়ী ধোনির দলের দক্ষিণ আফ্রিকান কোচের অধীনে সে বারের টুর্নামেন্টে সেরা ভারতীয় পেসার জাহির বললেন, ‘‘গ্যারি দারুণ কোচ। আমরা দু’জনে এক সঙ্গে আগের বারের বিশ্বকাপ-সহ প্রচুর সময় খুব ভাল কাটিয়েছি। আশা করি আমাদের গুরু-শিষ্যের ওই সাফল্যের রিপ্লে এ বার দিল্লি ডেয়ারডেভিলসেও দেখতে পাওয়া যাবে। আমি, যুবি, আমরা গ্যারির কোচিংয়ের ধরনধারণ যেমন খুব ভাল জানি, তেমনই উনিও জানেন আমাদের থেকে সেরাটা কী ভাবে বার করতে হয়।’’ জাহির আরও যোগ করলেন, ‘‘এক বছর আগেও আমি নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে খেলেছি। তার পর চোটের জন্য অনেক দিন মাঠের বাইরে চলে যাই। মুম্বই ইন্ডিয়ান্সকেও গত আইপিএলে সাহায্য করতে পারেনি। কিন্তু এখন আমি ফিট। আবার ক্রিকেট খেলাটাকে উপভোগ করছি। একটা একটা ধাপ এগিয়ে আবার ভারতীয় দলে ফিরতে চাই। আপাতত আইপিএল আমার প্রথম ধাপ।’’

এই সময় জাহিরকে সমর্থন করতে দেখা গেল যুবরাজকে। ২০১৩-এ দেশের নীল জার্সিতে শেষ ওয়ান ডে খেলা যুবরাজ বললেন, ‘‘জাক একেবারে ঠিক। আমি শুধু যোগ করব, ডিডি আগের বার আইপিএলে ভাল করতে পারেনি। আমাদের ভাল খেলা মানে দিল্লি ডেয়ারডেভিলসেরও সাফল্য পাওয়া। নিজের মূল্যটাও কিন্তু আমি চুকোতে চাইব আমার ফ্র্যাঞ্চাইজির কাছে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement