• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

এক লক্ষের যুব বাহিনী গড়ার ডাক অভিষেকের

Abhishek
আনুষ্ঠানিক ভাবে যাত্রা শুরু করল ‘বাংলার যুবশক্তি’। —প্রতীকী চিত্র।

করোনা আর আমপানকে সামনে রেখে রাজ্য ব্যাপী এক লক্ষ সদস্যের একটি যুব বাহিনী তৈরিতে উদ্যোগী হল তৃণমূল। দলের যুব সভাপতি অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের তত্ত্বাবধানে জুলাইয়ে এই বাহিনীর একটি ভার্চুয়াল সভার ভাবনাও রয়েছে। রাজনৈতিক মহলের ধারণা, ভোটের আগে ‘বাংলার যুবশক্তি’ নামের এই উদ্যোগের মাধ্যমে স্থানীয় স্তরে দলের উপস্থিতি মজবুত করতে চাইছেন তৃণমূল নেতৃত্ব।

রাজ্যে বিধানসভা ভোট ঠিক এক বছর পরে। রাজনৈতিক তৎপরতার কেন্দ্রে এসে গিয়েছে করোনা ও আমপান পরবর্তী পরিস্থিতি। এ বার সেই রোগ-দুর্ভোগকে সামনে রেখে শক্তি বাড়াতে নেমে পড়ল তৃণমূল। বৃহস্পতিবার অভিষেক বলেন, ‘‘এই কঠিন সময়ে রাজ্যের মানুষের পাশে দাঁড়াবে এই যুব বাহিনী। নিজের পাড়ায়, অঞ্চলে, শহরে মানুষের প্রয়োজনে হাত বাড়িয়ে দেবেন তাঁরা।’’ এই বাহিনীতে যুক্ত হতে পারবেন ১৮ থেকে ৩৫ বছর বয়সীরা।

‘বাংলার যুবশক্তি’ নামে এই সাংগঠনিক উদ্যোগ নিয়ে গত মঙ্গলবারই যুব তৃণমূলের নেতাদের সঙ্গে বৈঠক করেন অভিষেক। এই বাহিনী তৈরির জন্য একটি ওয়েবসাইট চালু করা হয়েছে। সেখানে নাম নথিভুক্ত করলে আগ্রহীকে নিজের বিধানসভা কেন্দ্রের হোয়াটস অ্যাপ গ্রুপে যুক্ত করে নেওয়া হবে। 

এ দিন ফের কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বঞ্চনার অভিযোগ তুলে সরব হন তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়, মন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায় ও পরিষদীয় দলের সচিব সমীর চক্রবর্তী। তাঁদের অভিযোগ, ভার্চুয়াল সভায় কুমিরের কান্না কেঁদেছেন অমিত শাহ। পার্থবাবু বলেন, ‘‘আমপানে দুর্গত মানুষের জন্য মমতার সরকার সাড়ে ৬ হাজার কোটি টাকা খরচ করছে।’’ তৃণমূলের অভিযোগ উড়িয়ে বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, ‘‘কোন খাতে টাকা খরচ হয়েছে, জানানো হোক। পাকা বাড়ির মালিক ক্ষতিপূরণ পেয়েছেন।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন