• নিজস্ব প্রতিবেদন
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মিডিয়া ও বিনোদন শিল্পে, শিক্ষায় কোভিড পরবর্তী যুগ: শিক্ষকদের রাউন্ড টেবল আগামী ৬ জুন

webinar
এবিপি এডুকেশন নিয়ে আসছে মিডিয়া শিক্ষকদের রাউন্ড টেবল, আগামী ৬ জুন এক লাইভ ওয়েবিনারে।

করোনা অতিমারি যে ভাবে দেশের বিভিন্ন শিল্পক্ষেত্রে বড়সড় বদল নিয়ে আসছে, সংবাদমাধ্যম ও বিনোদনও তার ব্যতিক্রম নয়। পাল্টে যাচ্ছে মিডিয়া ও বিনোদনের সঙ্গে মানুষের দৈনন্দিন সম্পর্কের ধরনধারণ।

কোভিড-হামলার দীর্ঘস্থায়ী প্রভাব মিডিয়ায় কতটা বা কী ভাবে পড়বে, তা এখনও বোঝা যায়নি পুরোপুরি। তবে প্রাথমিক প্রভাবেই মানুষের গ্রহণপদ্ধতিতে নানা পরিবর্তন স্পষ্ট। সাংবাদিকতা-সহ বিভিন্ন ধরনের মিডিয়া শিক্ষার প্রতিষ্ঠানগুলোতে পড়ানো এবং পড়ার ধরন এর পর কেমন হবে, কী কী বদলাবে, তা নিয়ে ভাবতে হচ্ছে। প্রশ্ন উঠছে— অফলাইন কর্মসূচি অর্থাৎ শারীরিক ভাবে এক সঙ্গে থেকে চলা কর্মসূচিগুলোর ভবিষ্যৎই বা কী হবে?

প্রশ্ন অনেক। আর তারই উত্তর খুঁজতে এ বার এবিপি এডুকেশন নিয়ে আসছে মিডিয়া শিক্ষকদের রাউন্ড টেবল, আগামী ৬ জুন এক লাইভ ওয়েবিনারে। বিনামূল্যে রেজিস্টার করুন এখানে

রাউন্ড টেবলে থাকছেন যাঁরা-

অধ্যাপক উজ্জ্বল কে চৌধুরী: ডিন, স্কুল অফ মিডিয়া, কমিউনিকেশন অ্যান্ড ফ্যাশন, অ্যাডামাস ইউনিভার্সিটি। বক্তব্য রাখবেন মিডিয়ার অভিমুখ প্রসঙ্গে।

অধ্যাপক সমীর মুখোপাধ্যায়: ডিপার্টমেন্ট অফ এমার্জিং টেকনোলজি অ্যান্ড ভিআর/ এআর/ এমআর/ এক্সআর-এর প্রধান, মৌলানা আবুল কালাম আজাদ ইনস্টিটিউট অফ টেকনোলজি। মতামত জানাবেন মিডিয়ায় অত্যাধুনিক প্রযুক্তি নিয়ে।

আরও পড়ুন: শহরে এক দিনে আক্রান্ত ১১৬, বদলাচ্ছে কন্টেনমেন্ট নীতি

ডক্টর অঞ্জন বেরা: অধ্যাপক, ডিপার্টমেন্ট অফ জার্নালিজম অ্যান্ড মাস কমিউনিকেশন, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়। আলোকপাত করবেন তথ্যের অধিকার বিষয়ে।

ডক্টর বিপ্লব লোহা চৌধুরী: অধ্যাপক এবং ভারপ্রাপ্ত শিক্ষক, সেন্টার ফর জার্নালিজম অ্যান্ড মাস কমিউনিকেশন, বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়

ডক্টর উমাশঙ্কর পান্ডে: ডিপার্টমেন্ট অফ জার্নালিজম অ্যান্ড মাস কমিউনিকেশনের প্রধান, সুরেন্দ্রনাথ কলেজ ফর উইমেন। আলোচনা করবেন তথ্য-ভিত্তিক সাংবাদিকতা নিয়ে।

ডক্টর অঙ্কুরণ দত্ত: ডিপার্টমেন্ট অফ কমিউনিকেশন অ্যান্ড জার্নালিজম, গুয়াহাটি বিশ্ববিদ্যালয়। আলোচনার বিষয় ‘ইনফোডেমিক: ফেক নিউজ’।

অধ্যাপক রাজেশ সিসোদিয়া: ডেপুটি ডিরেক্টর, অ্যামিটি স্কুল অফ কমিউনিকেশন। বলবেন ব্রডকাস্ট মিডিয়া প্রসঙ্গে।

অধ্যাপক মিনাল পারেখ: স্কুল অফ মিডিয়া কমিউনিকেশন আর্টস অ্যান্ড ডিজাইন-এর প্রধান, সিস্টার নিবেদিতা বিশ্ববিদ্যালয়। আলোচনা করবেন ভুয়ো খবরের সমস্যা নিয়ে।

ডক্টর মহম্মদ ফিরোজ: ডিরেক্টর, এনএসএইচএম স্কুল অফ মিডিয়া অ্যান্ড কমিউনিকেশন। বক্তব্যের বিষয় লকডাউন পরবর্তী মিডিয়া শিক্ষা।

ডক্টর (অধ্যাপক) মধুপা বক্সী: ডিন, ডিপার্টমেন্ট অফ মিডিয়া সায়েন্স, দ্য হেরিটেজ অ্যাকাডেমি, কলকাতা। আলোচনার বিষয়: মিডিয়ার উপার্জনের প্রধান জায়গাটা হল কনটেন্ট বা বিষয়বস্তু।

অধ্যাপক ঘাজালা ইয়াসমিন: সহকারী অধ্যাপক, ডিপার্টমেন্ট অফ জার্নালিজম অ্যান্ড মাস কমিউনিকেশন, আলিয়া বিশ্ববিদ্যালয়। মতামত জানাবেন নারী ও মিডিয়া বিষয়ে।

ডক্টর মানালি ভট্টাচার্য: ভারপ্রাপ্ত অধ্যাপক, মাস কমিউনিকেশন ডিপার্টমেন্ট, সেন্ট জেভিয়ার্স বিশ্ববিদ্যালয়। কথা বলবেন অনলাইন মাধ্যমে কমিনিকেশন শিক্ষার চ্যালেঞ্জ প্রসঙ্গে।

আরও পড়ুন: বাসের জন্য হাপিত্যেশ-দুর্ভোগ, একই ছবি কলকাতা থেকে জেলায়

অমরেশ সিংহ: কর্ণধার, ন্যাশনাল অ্যাকাডেমি অফ মিডিয়া অ্যান্ড ইভেন্টস। আলোচনার বিষয় ইভেন্ট ম্যানেজমেন্ট।

ডক্টর জ্ঞানরঞ্জন মিশ্র: প্রোগ্রাম কোঅর্ডিনেটর, বিড়লা স্কুল অফ কমিউনিকেশন, বিড়লা গ্লোবাল ইউনিভার্সিটি, ভুবনেশ্বর।

অধ্যাপক তাপস রায়: ফিউচার মিডিয়া স্কুলের প্রধান, ফিউচার স্কুল অফ ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড ম্যানেজমেন্ট।

সঞ্চালনায়-

অধ্যাপক কে জি সুরেশ: ডিন, স্কুল অফ মডার্ন মিডিয়া, ইউনিভার্সিটি অফ পেট্রোলিয়াম অ্যান্ড এনার্জি স্টাডিজ, দেহরাদুন।

সময় - ৬ জুন, বিকেল ৩টে। নিখরচায় রেজিস্টার করুন এখানে

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন