দুর্যোগ থেকে এখনই রেহাই নেই রাজ্যবাসীর। বরং কলকাতা, দুই ২৪ পরগনা এবং পূর্ব মেদিনীপুর-সহ দক্ষিণবঙ্গে বৃষ্টির পরিমাণ আরও বাড়বে। সঙ্গে ঝোড়ো হাওয়া বয়ে যেতে পারে। পরিস্থিতির উন্নতি হওয়ার সম্ভাবনা খুবই কম। উল্টে রাজ্য জুড়ে আগামী ৪৮ ঘণ্টা বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি চলবে। সেই সঙ্গে কোথাও কোথাও শিলাবৃষ্টি হতে পারে। এমনই আশঙ্কা প্রকাশ করল আলিপুর আবহাওয়া দফতর। একই সঙ্গে উত্তরবঙ্গেও বৃষ্টি হবে।

সোমবার মধ্যরাত থেকে ভোরের মধ্যে দু’বার কালবৈশাখী বয়ে গিয়েছে শহরের উপর দিয়ে। ঝোড়ো হাওয়ার গতিবেগ ছিল ঘণ্টায় ৪৪ থেকে ৫৫ কিলোমিটারের মধ্যে। তার জেরে যেমন গাছ ভেঙে পড়েছে, তেমনই পাঁচিল, রাস্তার ধারে ল্যাম্প পোস্ট, হোর্ডিং, ফেস্টুন ভেঙেও বিপত্তি ঘটেছে। এখনও পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনী এবং পুরসভার কর্মীরা রাস্তা থেকে গাছ সরিয়ে ফেলেছেন। যান চলাচল এখন স্বাভাবিক। যদিও ঝোড়ো হাওয়ার সঙ্গে ঝড়-বৃষ্টির সতর্কতা থাকায় পরিস্থিতির ওপরে নজর রাখছে পুলিশ-প্রশাসন। আলিপুর আবহাওয়া দফতরের অধিকর্তা গণেশপ্রসাদ দাস বলেন, “বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টি চলব আগামী ৪৮ ঘণ্টা।”

আবহাওয়া বিজ্ঞানীরা জানিয়েছেন, পশ্চিমী ঝঞ্ঝার সঙ্গে পূবালী হাওয়ার সংঘাতের জেরেই দক্ষিণবঙ্গে এমন পরিস্থিতি। মঙ্গলবার থেকে উত্তরবঙ্গেও বৃষ্টির পরিমাণ বাড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।

আরও পড়ুন: জোড়া কালবৈশাখীতে বিপর্যস্ত ট্রেন চলাচল, বাতিল ৬টি ট্রেন, দুর্ভোগে যাত্রীরা

প্রকৃতি সম্পর্কে এই তথ্যগুলো জানতেন?