সারা দিন দোকান সামলান। তাঁরই ফাঁকে চলে পড়াশোনা। এ ভাবেই স্নাতক স্তরে মিলেছে স্বর্ণপদক। সম্প্রতি একটি সর্বভারতীয় পরীক্ষায় ভাল ফল করেছেন ওই ছাত্র। এমন সাফল্যকে স্বীকৃতি দিতে ওই ছাত্রের বাড়ির সামনের দু’শো মিটার কাঁচা রাস্তা পাকা করার আশ্বাস দিয়েছে জলপাইগুড়ি জেলা পরিষদ।

জলপাইগুড়ি থেকে শিলিগুড়ি যাওয়ার রাস্তায় পড়ে দশদরগা নামে একটি জনপদ। সেখানকারই বাসিন্দা সৌরভ সরকার। মুদি দোকান সামলেই পড়াশোনা চলছে তাঁর। ২০১৭ সালে উত্তরবঙ্গ বিশ্ববিদ্যালয় থেকে জীববিদ্যায় স্বর্ণপদক পেয়েছেন। এর মধ্যে সিএসআইআর-নেট পরীক্ষায় ভাল ফল করেছেন সৌরভ। দশদরগার যেখানে তাঁর বাড়ি, সেখান থেকে একটি কাঁচা রাস্তা গিয়ে উঠেছে ওই এলাকার পাশ দিয়ে যাওয়া জাতীয় সড়কে। সেই ভাঙাচোরা রাস্তা পাকা করার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। জেলা পরিষদের সহকারি সভাধিপতি দুলাল দেবনাথ ওই এলাকারই বাসিন্দা। তিনি বলেন, ‘‘সৌরভকে ফুল দিয়ে সংবর্ধনা দেওয়াই যায়, কিন্তু সাফল্যের স্বীকৃতি হিসেবে রাস্তা করে দিলে অনেকে পড়াশোনায় উৎসাহিত হবেন।’’ রাস্তা বানানোর কথা শুনেছেন সৌরভও। তিনি বলেন, “এমন হলে গ্রামেরই উপকার হবে।”

এর আগে এশিয়ান গেমসে সোনা জেতায় জলপাইগুড়ির কালিয়াগঞ্জে স্বপ্না বর্মণের বাড়ির সামনের রাস্তা পাকা করে দিয়েছিল স্থানীয় প্রশাসন। জেলা পরিষদ সূত্রের খবর, রাস্তার কাজ শুরুর নির্দেশ দিয়ে দেওয়া হয়েছে। আগামী মাসের মধ্যে তা শেষ হবে বলে আশ্বাস।