বিধানসভায় স্বাস্থ্য দফতরের একটি বিল সংক্রান্ত আলোচনায় রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে নির্বাচন তুলে দিয়ে গণতন্ত্রকে ধ্বংস করার অভিযোগ আনল বিরোধীরা। সরকার পক্ষ অবশ্য সেই অভিযোগ খারিজ করেছে।  

বিধানসভায় বৃহস্পতিবার ‘দ্য ওয়েস্ট বেঙ্গল অ্যালায়েড-মেডিক্যাল অ্যান্ড প্যারা মেডিক্যাল কাউন্সিল (অ্যামেন্ডমেন্ট) বিল, ২০১৯’ পাশ হয়েছে। সেই বিলে বলা হয়েছে, ওই কাউন্সিলের প্রেসিডেন্ট এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট নির্বাচিত হবেন না। ওই দুই পদে বসবেন রাজ্য সরকারের মনোনীত ব্যক্তিরা। কাউন্সিলের কাজ দ্রুত ও ঠিক ভাবে করতেই এই ব্যবস্থা। কংগ্রেস বিধায়ক নেপাল মাহাতো এবং সিপিএম বিধায়ক আমজাদ হোসেন অভিযোগ করেন, ওই কাউন্সিলের দুই শীর্ষ পদে নির্বাচনের বদলে মনোনয়নের ব্যবস্থা চালু করে গণতান্ত্রিক ব্যবস্থা ধ্বংস করতে চাইছে রাজ্য সরকার। স্বাস্থ্য প্রতিমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য অবশ্য জবাবি ভাষণে বলেন, ‘‘আমরা নির্বাচিত সংস্থা ভাঙছি না। শুধু প্রেসিডেন্ট এবং ভাইস প্রেসিডেন্ট পদে মনোনয়ন করা হবে। কাউন্সিলের নির্বাচন বন্ধ হবে না।’’

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও।সাবস্ক্রাইব করুনআমাদেরYouTube Channel - এ।