কাশ্মীর নিয়ে এ বার কলেজে কলেজে সরব হবে অখিল ভারতীয় বিদ্যার্থী পরিষদ (এবিভিপি)। প্রচার করবে, কেন সেখানে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিলের প্রয়োজন ছিল। ছাত্রছাত্রীদের মধ্যে যাতে ৩৭০ অনুচ্ছেদ বাতিল নিয়ে বিরূপ প্রতিক্রিয়া তৈরি না হয়, সে দিকে বিশেষ ভাবে নজর রাখতে বলা হয়েছে কর্মীদের। শনিবার এমনই বার্তা দেওয়া হল তাদের সর্বভারতীয় কর্মিসভার বৈঠকে। 

এ দিন সকালে কলকাতায় শুরু হয় এবিভিপির দু’দিন ব্যাপী কর্মিসভার বৈঠক। এসেছেন সংগঠনের সর্বভারতীয় সভাপতি এস সুব্বাইয়া এবং সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক আশিস চৌহান। এবিভিপির রাজ্য সম্পাদক সপ্তর্ষি সরকার এ দিন বলেন, ‘‘শনিবারের বৈঠকে মূলত গত এক বছরে সংগঠন কী কী করেছে তা নিয়ে আলোচনা হয়েছে। তবে জোর দেওয়া হয়েছে পশ্চিমবঙ্গের উপর। কী ভাবে এখানে একের পর এক কর্মী আক্রান্ত হচ্ছেন, তা নিয়ে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে।’’ সপ্তর্ষির বক্তব্য, এবিভিপির উপর আক্রমণ কী ভাবে প্রতিহত করা যায়, সে বিষয়েও এ দিন বৈঠকে দীর্ঘ আলোচনা হয়েছে। 

একই সঙ্গে সিদ্ধান্ত হয়েছে, নয়া শিক্ষা নীতি নিয়েও ছাত্রছাত্রীদের সঙ্গে আলোচনা করার প্রস্তাব হয়েছে এ দিনের বৈঠকে।

আজ, রবিবার বৈঠকের শেষ দিন। এবিভিপি সূত্রের খবর, আজ আগামী এক বছর সংগঠন কী ভাবে কাজ করবে, তার নির্দেশ দেওয়া হবে।