‘আর্থিক এবং প্রশাসনিক অস্বচ্ছতা’র অভিযোগে ইন্ডিয়ান স্ট্যাটিস্টিক্যাল ইনস্টিটিউটের (আইএসআই) অধিকর্তার পদ থেকে সরানো হল অধ্যাপক বিমল রায়কে। গত বুধবার এই মর্মে বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে কেন্দ্র। পরবর্তী অধিকর্তা হিসাবে অধ্যাপক সঙ্ঘমিত্রা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নাম প্রস্তাব করেছে কেন্দ্র। আইএসআইয়ের অধ্যাপকদের একাংশের মতে, যে ভাবে এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে, তা শুধু ‘অনৈতিক এবং অনভিপ্রেত’ই নয়, তা অপমানজনকও। কেন্দ্রের এই সিদ্ধান্তের প্রতিবাদে আদালতে যাওয়ার পরিকল্পনা করছেন সংস্থার পরিচালন সমিতির সদস্যরা।
দেশের উচ্চ শিক্ষা প্রতিষ্ঠানগুলিতে পছন্দের লোক বসানোর রেওয়াজ বহু দিনের। বিভিন্ন রাজ্যে রাজ্যপাল নিয়োগেও নিজেদের লোক বসানোর অভিযোগ কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বহু দিনের। আইএসআইয়ের ক্ষেত্রে অবশ্য এই অভিযোগ আনা যায় না। প্রতিষ্ঠানের পরিচালন সমিতির চেয়ারম্যান অরুণ শৌরির সঙ্গে বিমলবাবুর ব্যক্তিগত সম্পর্ক ভাল নয়। এমনকী তাঁর নিয়োগের সময়েও আপত্তি জানিয়েছিলেন প্রবীণ এই বিজেপি নেতা। শৌরির সঙ্গে সম্পর্কের খেসারতই কি দিতে হল বিমলবাবুকে? প্রশ্ন একন সেটাই।

মাত্র কয়েক মাস আগে বিমলবাবুকে পদ্মশ্রী সম্মান দিয়েছে কেন্দ্র। কেন্দ্র সরকারি ভাবে দুর্নীতির অভিযোগ আনায় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা হিসাবে তাঁর সেই উপাধিও ফিরিয়ে নেওয়া হতে পারে।

আগামী ১ অগস্ট পর্যন্ত বিমলবাবুর ওই পদে থাকার কথা ছিল। বিজ্ঞপ্তিতে অবিলম্বে তাঁকে পদ থেকে সরে যাওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছে, পদে থেকে গেলে তিনি পদের অপবহ্যবহার তো করতে পারেনই, সংস্থার আরও আর্থিক অনিয়মও করতে পারেন। এই নির্দেশকেই চুড়ান্ত অপমানজনক বলে মনে করছেন বিমলবাবুর সতির্থরা।