ফের গুরুঙ্গকে পাহাড়ে আসার চ্যালেঞ্জ ছুঁড়লেন বিনয় তামাঙ্গ। সম্প্রতি বিমল গুরুঙ্গের কয়েকটি অডিও বার্তায় পাহাড়ে নানা জল্পনা তৈরি হয়েছে। সাম্প্রতিকতম অডিও বার্তায় গুরুঙ্গ তাঁর অনুগামীদের ‘জেল খাটা’র জন্য প্রস্তুত থাকতে বলেছেন। যার প্রতিক্রিয়ায় এ দিন বিনয় তামাঙ্গের হুঁশিয়ারি, ‘‘রেকর্ড করা কথা পাঠিয়ে কতদিন চালাবেন, এবার সামনে আসুন!’’ গুরুঙ্গ পাহাড়ে ফিরতে পারবেন কিনা জানতে চাইলে বিনয়ের মন্তব্য, ‘‘দেখাই যাক!’’

বৃহস্পতিবার শিলিগুড়িতে চা মজুরি নিয়ে বৈঠকে যোগ দিতে এসেছিলেন বিনয় তামাঙ্গ এবং অনীত থাপাও। আগামী মার্চে শিল্প সম্মেলনে ফের পাহাড়ে যাচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী। এ দিনই দার্জিলিঙের জেলাশাসক জয়সী দাশগুপ্ত জানিয়েছেন সরকারি কর্মীরা পাহাড়ে বনধ চলার চার মাসের মাইনে পেয়ে যাবেন। এই পরিস্থিতিতে ফের গুরুঙ্গের অডিও বার্তা পাহাড়ে নতুন করে অশান্তি ছজড়ানোর চেষ্টা বলে দাবি বিনয়পন্থীদের। যদিও পাহাড়ে শিল্প সম্মেলনের আগে কোনভাবেই পান থেকে চুন খসতে দিতে রাজি নন বিনয়রা।

সূত্রের খবর, এ দিনই পাহাড়ে ফিরে মোর্চার শীর্ষ নেতাদের নিয়ে বৈঠকে বসবেন বিনয়-অনীত। গুরুঙ্গের হুমকিতে কর্মীরা যাতে মনোবল হারিয়ে না ফেলে তার জন্য পাল্টা হুমকির কৌশলই বেছেচেন তাঁরা। অডিও বার্তায় সুপ্রিম কোর্টের মামলার প্রসঙ্গের কথা উল্লেখ্য করেছেন গুরুঙ্গ। সুপ্রিম কোর্টে আগাম জামিন পেলে গুরুঙ্গের পাহাড়়ে ফেরার পথ মসৃণ হবে বলে দাবি। তাতে কোনও গুরুত্ব দিতে রাজি নন বিনয়। তাঁর মন্তব্য, ‘‘ ক্ষমতা থাকলে এতদিনেই সামনে আসতে পারতেন। লুকিয়ে থেকে রেকর্ড কথা না পাঠিয়ে সাহস থাকলে সামনে আসুন।’’