• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বিজেপি নেতাদের উপর হামলার জের, রাজ্য জুড়ে বিক্ষোভ-অবরোধ-মিছিল

Joy Banerjee
হামলার ঘটনায় তৃণমূলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুললেন বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। —নিজস্ব চিত্র।

Advertisement

অজ্ঞাতপরিচয় দুষ্কৃতীদের হাতে আক্রান্ত হওয়ার পর কেটে গিয়েছে প্রায় একটা দিন। এখনও চিকিৎসকদের পর্যবেক্ষণে রয়েছেন বিজেপি নেতা জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। এই হামলার প্রতিবাদে সোমবার রাজ্য জুড়ে বিক্ষোভ, অবরোধ, মশাল মিছিল করবেন দলের কর্মী-সমর্থক-নেতারা।

কলকাতার একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন বিজেপি-র জাতীয় কর্মসমিতির সদস্য জয় বন্দ্যোপাধ্যায়। দুষ্কৃতীদের মারে মাথায় চোট পেয়েছেন। জয় বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিযোগ, তাঁকে নিশানা করেই এই হামলা চালিয়েছে তৃণমূল। সোমবার হাসপাতালের বিছানায় শুয়ে তাঁর মন্তব্য, “আমার মাথায় বাঁশ দিয়ে মারা হয়েছে। আমাকে নিশানা করে নিয়েছে।”

রবিবার হুগলির চণ্ডীতলার মশাটে এক জনসভা ছিল বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের। দিলীপবাবুর সঙ্গে ওই সভায় উপস্থিত ছিলেন দলের অন্যতম জাতীয় সম্পাদক রাহুল সিংহ, জয় বন্দ্যোপাধ্যায়, লকেট চট্টোপাধ্যায়-সহ বিভিন্ন নেতা। বিজেপি-র অভিযোগ, সন্ধ্যায় গাড়ি করে ফেরার পথে ডানকুনির কালীপুরের কাছে প্রথমে দিলীপ ঘোষ এবং রাহুল সিংহের গাড়ি আটকানোর চেষ্টা করে তৃণমূলআশ্রিত দুষ্কৃতীরা। এর পর জয় বন্দ্যোপাধ্যায়ের গাড়িতে ইট-বাঁশ দিয়ে ভাঙচুর চালানো হয়। ইট-বাঁশ মেরে জয়ের গাড়ির পিছনের কাচ ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়া হয়। তাতে আঘাত লাগে জয়ের মাথায়।

ইতিহাসের পাতায় আজকের তারিখ, দেখতে ক্লিক করুন — ফিরে দেখা এই দিন

আরও পড়ুন: এক ক্লাবের দুই দল, ফুটবল মাঠে দ্বন্দ্ব তৃণমূল-বিজেপির

গোটা বিষয় নিয়েই সরব হয়েছেন বিজেপি নেতৃত্ব। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক এবং রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠীর কাছে ঘটনার বিবরণ জানিয়ে হুগলির পুলিশ সুপারের শাস্তি দাবি করেছে বিজেপি। এ দিন জয় বলেন, “আমি কাল থেকেই আবার জেলায় জেলায় যাব| প্রধানমন্ত্রী, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী এবং বিজেপি-র সর্বভারতীয় সভাপতিকে আমি পুরো ঘটনা জানিয়েছি। আশা করছি, পদক্ষেপ করা হবে।” জয় জানিয়েছেন, হামলার অভিযোগে এ দিন এফআইআর দায়ের করবেন রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব।

আরও পড়ুন: স্নাতক বৃদ্ধা ভিক্ষা করেন হাওড়া স্টেশনে, আগলে রেখেছেন হকার ছেলেরা

গত কালের হামলার প্রতিবাদে এ দিন কলকাতায় পথে নেমেছেন রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব। দুপুর সাড়ে ১২টা থেকে শহরের বিভিন্ন প্রান্তে অবরোধ শুরু করেছেন তাঁরা। বেহালা শিমুলতলা মোড়, যাদবপুর ৮বি বাসস্ট্যান্ড থেকে  মোমিনপুর ক্রসিংয়ে অবরোধ কর্মসূচি চালানো হচ্ছে। এ ছা়ড়া, দুপুর ২টোয় বিজেপি অফিস থেকে বিক্ষোভ মিছিল বার হয়ে তা লালবাজার পর্যন্ত যাবে। মিছিলের নেতৃত্বে থাকবেন রাজ্য বিজেপি-র সহ-সভাপতি সুভাষ সরকার, দলের সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু-সহ অন্যান্য নেতা।

(দুই চব্বিশ পরগনা, হাওড়া ও হুগলি, নদিয়া-মুর্শিদাবাদ, সহ দক্ষিণবঙ্গের খবর, পশ্চিমবঙ্গের বিভিন্ন জেলা খবর, বাংলার)

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন