• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

দিলীপদের চার্জশিট, আমল দিচ্ছে না তৃণমূল

Dilip Ghosh
সাংবাদিক সম্মেলনে নয়া আন্দোলনের ঘোষণা দিলীপ ঘোষের। —নিজস্ব চিত্র

আগামী পুর ও বিধানসভা ভোটের কথা মাথায় রেখে করোনা এবং ‘আমপান’ দুর্যোগকে হাতিয়ার করে ইতিমধ্যেই প্রচারে নেমেছে বিজেপি। এ বার মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের ৯ বছর পূর্তিকে সামনে রেখেও বুধবার কার্যত নির্বাচনী প্রচার শুরু করে দিল তারা। করোনা তথা স্বাস্থ্য সঙ্কট, ‘আমপান’ মোকাবিলায় ব্যর্থতা, রেশন দুর্নীতি, আইনশৃঙ্খলার অবনতি এবং গণতন্ত্রহীনতা, ভেঙে পড়া অর্থনীতি এবং শিল্পের আকাল, শিক্ষা ব্যবস্থার দুর্দশা, কৃষক বিরোধী ভূমিকা, কাটমানি ও দুর্নীতি এবং হিন্দু ও শরণার্থী বিরোধিতা—এই ৯টি প্রশ্নে তৃণমূল সরকারকে কাঠগড়ায় তুলেছেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। পাশাপাশিই বিজেপির কেন্দ্রীয় পর্যবেক্ষক কৈলাস বিজয়বর্গীয়, সহ-পর্যবেক্ষক অরবিন্দ মেনন থেকে শুরু করে দলের রাজ্য ও কেন্দ্রীয় নেতা এবং সাংসদেরা টুইটারে ‘আর নয় মমতা’ শীর্ষক প্রচার চালিয়েছেন। তাঁদের টুইট-তিরেও নিশানা করা হয়েছে ওই ৯টি বিষয়েরই কোনও না কোনও দিকে।

শাসক তৃণমূল অবশ্য বিজেপির চার্জশিট নিয়ে মাথাই ঘামাচ্ছে না। রাজ্যের মন্ত্রী তথা তৃণমূল নেতা ফিরহাদ হাকিম বলেন, ‘‘যাঁদের চার্জই মানি না, তাঁদের আবার চার্জশিট! দিলীপ ঘোষ সাংসদ। কিছু বলার থাকলে সংসদে বলুন। বিরোধী হিসাবে আমাদের প্রশ্ন করতে চাইলে বিধানসভায় বিধায়কদের দিয়ে করাবেন। তখন উত্তর পাবেন। এখন এত সব প্রশ্নের উত্তর দেওয়ার প্রয়োজন মনে করি না!’’

করোনা আবহে এর আগেও বেশ কয়েক দিন মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা করে নানা ‘ট্যাগলাইন’ দিয়ে প্রচার চালিয়েছে বিজেপি। দিলীপবাবু এ দিন বলেন, ‘‘সাধারণ মানুষের কাছ থেকে যে ধরনের সমস্যার কথা এসেছে, সেগুলিই আমরা চার্জশিটের মাধ্যমে তুলে ধরেছি।’’ লকডাউনের আগে পুরভোটকে সামনে রেখে ‘আর নয় অন্যায়’ শিরোনামে প্রচার শুরু করেছিল বিজেপি। সেই প্রচারের লোগো ব্যবহার করেই ‘আর নয় মমতা’ শিরোনামে চার্জশিট এবং টুইট-আক্রমণে নেমেছে তারা।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন