স্কুলের বাসে বাড়ি ফেরার পথেই মত্ত খালাসির হাতে যৌন হেনস্থার শিকার হল একাধিক কিশোরী! ছাত্রীদের সঙ্গে থাকা ছাত্ররা প্রতিবাদ করলে, তাদের মারধর করার হুমকি দেওয়া হয় বলে অভিযোগ।

অভিযোগ, বুধবার ঘটনাটি ঘটেছে ব্যারাকপুরের রিভারসাইড রোডের একটি নামী ইংরাজি মাধ্যম স্কুলের বাসে। নবম শ্রেণির এক ছাত্রীর অভিভাবকের অভিযোগ, গতকাল স্কুল ছুটি হওয়ার পর তাঁর মেয়ে এবং বাকি ছাত্রছাত্রীরা ওই বাসে রওনা হয়। তাঁর কথায়, ‘‘পৌনে পাঁচটা নাগাদ ওরা বাসে ওঠে। বাসটি ব্যারাকপুর চিড়িয়ামোড় আসার পরেই ছাত্রীরা টের পান খালাসি প্রকৃতস্থ নয়।” অভিভাবকদের পড়ুয়ারা জানিয়েছে, অমর নামের ওই খালাসি, নবম শ্রেণির একাধিক ছাত্রীর গায়ে হাত দেয় এবং অভব্যতা করে। এক অভিভাবক বলেন, ‘‘আমার মেয়ে এবং বাকি ছাত্রীরা প্রতিবাদ করে। তারা বাসের চালককেও গোটা বিষয় জানায় এবং খালাসিকে বাস থেকে নামিয়ে দিতে বলে। কিন্তু বাসের চালক পড়ুয়াদের কথায় কোনও কান দেননি।” অভিভাবকদের অভিযোগ, ছাত্রীদের সঙ্গে চার ছাত্রও ছিল। তারা প্রতিবাদ করলে ওই খালাসি মারধর করার হুমকি দেয়। পড়ুয়ারা বাড়ি ফেরার পরেই তারা অভিভাবকদের সমস্ত জানায়। এক অভিভাবক বলেন, ‘‘আমরা বিষয়টি জানার পরেই স্কুলের সঙ্গে যোগাযোগ করি।”

বৃহস্পতিবার সকালেই স্কুলে যান অভিভাবকরা। তাঁরা স্কুলের ভাইস প্রিন্সিপাল স্যামুয়েল ডেভিসের সঙ্গে দেখা করেন। নবম শ্রেণির এক পড়ুয়ার বাবা বলেন, ‘‘স্কুল কর্তৃপক্ষ আমাদের জানিয়েছেন, তাঁরা ঘটনা জানার পরেই ওই দু’জনকে সাসপেন্ড করে তদন্ত শুরু করেছেন। পুলিশে অভিযোগ জানানোরও পরামর্শও দিয়েছেন তাঁরা।” এ দিন দুপুরেই ব্যারাকপুর থানায় ওই খালাসি এবং চালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেন অভিভাবকরা। পুলিশ সূত্রে খবর, অভিযুক্ত খালাসিকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন: বিদ্যাসাগরের পঞ্চধাতুর মূর্তি বানিয়ে দেব, বললেন মোদী, ‘তোমারটা থোড়াই নেব’! পাল্টা মমতার