• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মেলেনি কপ্টার, অসন্তোষ স্পষ্ট রাজভবনের বিবৃতিতে, সড়কপথে ফরাক্কা যাচ্ছেন রাজ্যপাল

Jagdeep Dhankhar
সস্ত্রীক রাজ্যপাল। —ফাইল চিত্র।

Advertisement

আবার অসন্তোষের আভাস রাজভবনের বিবৃতিতে। মুখ্যমন্ত্রী-সহ প্রায় গোটা রাজ্য প্রশাসনের বিরুদ্ধে অসহযোগিতার অভিযোগ তোলা হল প্রকারান্তরে। রাজ্য সরকার কপ্টারের ব্যবস্থা না করায় এক দিনে ৬০০ কিলোমিটার সড়ক পথে যাতায়াত করতে হবে রাজ্যপালকে— বৃহস্পতিবার একটি বিবৃতি প্রকাশ করে এমনই জানিয়েছে রাজভবন। মুখ্যমন্ত্রীর উত্তরের অপেক্ষায় রয়েছেন রাজ্যপাল— এমনও জানানো হয়েছে রাজভবনের বিবৃতিতে।

শুক্রবার রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড় এবং তাঁর স্ত্রী সুদেশ ধনখড় ফরাক্কার একটি কলেজের অনুষ্ঠানে যোগ দিতে যাবেন বলে রাজভবনের তরফে জানানো হয়েছে। বৃহস্পতিবার বিকেলে প্রকাশিত বিবৃতিতে জানানো হয়েছে, বেলা ১২টা ২০-র মধ্যে মুর্শিদাবাদের উত্তরতম প্রান্তের ওই কলেজটিতে পৌঁছনোর কথা রাজ্যপালের। তাই ভোর ৫টায় তিনি রাজভবন থেকে রওনা দেবেন। রাজভবন জানিয়েছে, ফেরার পথে রাজ্যপাল প্রথমে বীরভূমের জেলা সদর সিউড়িতে যাবেন এবং সার্কিট হাউসে কিছু ক্ষণ থাকবেন। সেখান থেকে বর্ধমান সার্কিট হাউস হয়ে রাত ১০টায় রাজ্যপাল এবং তাঁর স্ত্রী রাজভবনে ফিরবেন।

এক দিনে সড়ক পথে এই ভাবে ৬০০ কিলোমিটার রাজ্যপালকে যাতায়াত করতে হবে রাজ্য সরকার কপ্টার না দেওয়ায়— বিবৃতিতে এমনই জানানো হয়েছে রাজভবনের তরফে। সময় মতোই কপ্টার চেয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছিল, কিন্তু এখনও পর্যন্ত কোনও ইতিবাচক সাড়া মেলেনি— বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় রাজভবনের বয়ান এ রকমই। বিবৃতিতে রাজভবন আরও জানিয়েছে যে, কপ্টার না পাওয়ার বিষয়টি রাজ্যের মুখ্যসচিবকে জানানো হয়েছে, জানানো হয়েছে মুখ্যমন্ত্রীকেও। উত্তরের প্রতীক্ষা চলছে বলেও লেখা হয়েছে।

আরও পড়ুন: পিকের ছকে প্রাণপণে ময়দানে তৃণমূল, উপনির্বাচনেও আলাদা ইস্তাহার খড়্গপুর-কালিয়াগঞ্জের জন্য​

শুক্রবার ভোর ৫টায় রওনা হওয়ার কথা রাজ্যপালের। বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা পর্যন্তও কপ্টার পাওয়ার খবর পৌঁছয়নি রাজ ভবনে। সুতরাং কপ্টার যে আর মিলবে না, তা রাজভবনের কাছে স্পষ্ট। কারণ কোনও গ্রামীণ এলাকায় হেলিকপ্টার নামাতে হলে কয়েক দিন আগে থেকে প্রস্তুতি নিতে হয়, হেলিপ্যাড বানিয়ে রাখতে হয়। এ ক্ষেত্রে সে সব কিছুই হয়নি। সুতরাং রাজ্যপাল যে গাড়িতেই যাবেন, তা মোটামুটি নিশ্চিত। কিন্তু একাধিক স্তরে জানানো সত্ত্বেও যে রাজ্যপাল কপ্টার পেলেন না এবং কোনও কোনও ক্ষেত্রে যে উত্তরও পেলেন না, বিবৃতিতে সে কথা খুব স্পষ্ট করে তুলে ধরল রাজভবন।

আরও পড়ুন: ন’বছর পর প্রেসিডেন্সির ক্ষমতায় আসতে চলেছে এসএফআই​

এর আগে রাস উৎসবে যোগ দিতে রাজ্যপালের শান্তিপুর সফরের জন্য সরকারের কাছে হেলিকপ্টার চেয়েছিল রাজভবন। প্রশাসনিক কারণে সরকার তা দিতে পারবে না বলায় রাজ্যপালের অসন্তোষ জানিয়ে নবান্নকে পাল্টা চিঠি দেওয়া হয়।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন
বাছাই খবর

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন