বিধানসভা ভবনে গ্রন্থাগার ও সংগ্রহশালা নির্মাণ নিয়ে প্রশ্ন উঠে গেল। বিধানসভা সূত্রের খবর, পুজোর আগে সেনাবাহিনীর তরফে মৌখিক ভাবে নির্মাণের কাজ সাময়িক বন্ধ রাখতে বলায় দু’তরফে টানাপোড়েন শুরু হয়েছে। বিধানসভার তরফে বিষয়টি জানিয়ে চিঠি দেওয়া হয়েছে কলকাতা পুলিশকে। স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় সোমবার বলেন, ‘‘নিজেদের জমিতেই আমরা সম্প্রসারণের কাজ করছি। এ ব্যাপারে যা করার, সচিবালয় করছে।’’

বিধানসভার এক নম্বর গেটের কাছে ভবনের একাংশের কাজ নিয়ে দেখা দিয়েছে জটিলতা। এই অংশে একটি গ্রন্থাগার ও সংগ্রহশালার কাজ শুরু করেছে বিধানসভা। সচিবালয় সূত্রে খবর, দুর্গাপুজোর আগে সেনাবাহিনীর পরিচয় দিয়ে কয়েক জন এসে এই কাজ নিয়ে আপত্তি জানান। এবং এ ব্যাপারে তাঁদের বিভাগীয় সম্মতি নেওয়া পর্যন্ত কাজ বন্ধ রাখতে বলা হয়। বিধানসভার সচিবালয়ের তত্ত্বাবধানে এই নতুন অংশের কাজ করছিল রাজ্য পূর্ত দফতর। পুজোর ছুটির পরে বিধানসভা খুললেও এই কাজ নিয়ে সংশয় তৈরি হয়। বিধানসভার তরফে স্থানীয় হেয়ার স্ট্রিট থানায় একটি চিঠিও দেওয়া হয়েছে। সচিবালয় সূত্রে খবর, সেনার তরফে এখনও লিখিত ভাবে কিছু জানানো হয়নি। তবে সেনা পরিচয় দিয়ে আপত্তি জানানোয় বিষয়টি নিয়ে প্রশাসনিক স্তরে আলোচনা শুরু হয়েছে। বিধানসভায় এই কাজের জন্য রাজ্য হেরিটেজ কমিশন এবং কলকাতা পুরসভার প্রয়োজনীয় অনুমোদন নেওয়া আছে। পূর্ত দফতর সূত্রে জানানো হয়েছে, এখন কাজ বন্ধ নেই। দফতরের শীর্ষ আধিকারিকের সঙ্গে এ দিন স্পিকারের বৈঠক হয়েছে।

পুলিশকে চিঠি দেওয়ার পরে এ দিন থেকে বিধানসভার গেটগুলিতে নিরাপত্তা বাড়ানো হয়েছে।