• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

করোনাভাইরাসে মৃতের সৎকারের বিধিতে বদল

Death
প্রতীকী ছবি।

কোভিড আক্রান্ত বা কোভিড সন্দেহভাজনের মৃতদেহ সৎকারের ব্যবস্থায় কিছুটা বদল আনল রাজ্য সরকার। 

এত দিন কোভিড আক্রান্ত বা সন্দেহভাজন কোনও ব্যক্তির মৃত্যু হলে, সংশ্লিষ্টের কোভিড পরীক্ষার ফল হাতে না পাওয়া পর্যন্ত পরিজন শ্রদ্ধা জানানোর সুযোগ পেতেন না। কিন্তু এ বার ফল আসার আগেই শ্রদ্ধা জানানোর সুযোগ পরিজনকে দেওয়া হবে। বিধি মেনে সঙ্গে সঙ্গে সৎকারের ব্যবস্থাও করবে প্রশাসন।

মঙ্গলবার কোভিড পর্যালোচনা বৈঠকের পরে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘কেউ মারা গেলে মৃত অবস্থায় হয়তো হাসপাতালে নিয়ে এসেছে, তার টেস্ট আগে করেও থাকলে রিপোর্টের অপেক্ষা করবে না। আইসিএমআর-এর নির্দেশিকা অনুয়ায়ী শেষ শ্রদ্ধা জানানো যাবে। কোভিড রোগীদের জন্য যে প্রোটোকল মানা হয়, সাসপেক্ট  হলেও তাকে অপেক্ষা করতে হবে না। মৃত্যুর পরে তার টেস্ট করার ব্যাপারটা থাকছে না।’’

প্রশাসনিক ব্যাখ্যায় আইসিএমআর-এর নির্দেশিকা অনুযায়ী, কোভিড আক্রান্ত বা ‘সাসপেক্ট’-এর দেহ সৎকারের প্রক্রিয়ায় কোনও পার্থক্য থাকে না। একজন ‘সাসপেক্ট’-এর মৃত্যু হলে তার নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট পেতে ১০-১২ ঘণ্টা সময় লাগে। ততক্ষণ শেষকৃত্যের জন্য ছাড়া হয় না। এখন তা আর হবে না। সঙ্গে সঙ্গে পরিবারের লোকেদের বিধি মেনে শ্রদ্ধা জানানোর সুযোগ দিয়ে দেহ সৎকারের ব্যবস্থা করা হবে।   

 

(জরুরি ঘোষণা: কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের জন্য কয়েকটি বিশেষ হেল্পলাইন চালু করেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এই হেল্পলাইন নম্বরগুলিতে ফোন করলে অ্যাম্বুল্যান্স বা টেলিমেডিসিন সংক্রান্ত পরিষেবা নিয়ে সহায়তা মিলবে। পাশাপাশি থাকছে একটি সার্বিক হেল্পলাইন নম্বরও। 

• সার্বিক হেল্পলাইন নম্বর: ১৮০০ ৩১৩ ৪৪৪ ২২২
• টেলিমেডিসিন সংক্রান্ত হেল্পলাইন নম্বর: ০৩৩-২৩৫৭৬০০১
• কোভিড-১৯ আক্রান্তদের অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা সংক্রান্ত হেল্পলাইন নম্বর: ০৩৩-৪০৯০২৯২৯)

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন