• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ধেয়ে আসছে বুলবুল, ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে রাজ্যবাসীকে আগাম সতর্কবার্তা নবান্নের

Bulbul
শনিবার সাগরের দৃশ্য। নিজস্ব চিত্র

ধেয়ে আসছে অতি ভয়ঙ্কর ঘূর্ণিঝড় বুলবুল। দ্রুত ভূখণ্ডের সঙ্গে দূরত্ব কমছে তার। রাতের মধ্যেই এ রাজ্যের সাগরদ্বীপ এবং বাংলাদেশের খেপুপাড়া মধ্যে আঘাত হানতে চলেছে বুলবুল। ক্ষতি এড়াতে একাধিক আগাম সতর্কবার্তা জারি করল রাজ্য সরকার। সেই সঙ্গে হেল্পলাইন নম্বরও দেওয়া হয়েছে সরকারের তরফে।

ফণীর সময়েও ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে এমনই সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছিল নবান্নের তরফে। কিন্তু, সেই ঝড় সামান্য প্রভাব ফেলেছিল এ রাজ্যে। তবে বুলবুলের প্রভাব যে এ রাজ্যেও পড়বে, বলছেন আবহবিদরাই। ক্ষয়ক্ষতি এড়াতে তৎপর রাজ্য। তাই বেশ কয়েকটি সতর্কবার্তা জারি করা হয়েছে।

সেখানে বলা হয়েছে—

• গুজবে কান না দিয়ে রেডিয়ো, টিভি ও সংবাদপত্রের আবহাওয়ার খবর এবং প্রশাসনের সতর্কবার্তার দিকে লক্ষ্য রাখুন

• মৎস্যজীবীরা সমুদ্রে যাবেন না এবং নৌকা নিরাপদ স্থানে বেঁধে রাখুন

• অত্যাবশ্যকীয় সামগ্রী, খাবার, ওষুধ, জল এবং পোশাক প্রস্তুত রাখুন

• মোবাইল ফোনে চার্জ দিয়ে রাখুন

• জরুরি নথিপত্র ও মূল্যবান সামগ্রী জল থেকে বাঁচিয়ে রাখুন

• নিরাপত্তার জন্য গৃহপালিত পশুর বাঁধন খুলে দিন

• খড়ের ঘর, কাঁচা বাড়ি ও ক্ষতিগ্রস্ত পাকা বাড়িতে থাকবেন না

• ঘূর্ণিঝড় আশ্রয় কেন্দ্র বা নিকটবর্তী নিরাপদ পাকা বাড়িতে আশ্রয় নিন

• ভেঙে পড়া বৈদ্যুতিক স্তম্ভ, তার এবং ধারালো বস্তু সম্পর্কে খেয়াল রাখুন

• প্রয়োজনে রাজ্য সরকারের হেল্পলাইন নম্বর ১০৭০-এ ফোন করুন

আরও পড়ুন: ঘূর্ণিঝড়ের সাতকাহন

আরও পড়ুন: সাগরদ্বীপ থেকে মাত্র ৬০ কিমি দূরে বুলবুল, গতি ১২০ কিমি, রাতে বড় ছোবল সুন্দরবনে?​

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন