‘বামমন্দির’! পুনর্দখল দিনহাটায়
সিপিএমের দাবি, বছরখানেক আগে বাড়িটি দখল করে ‘বোল ব্যোম সমিতি’র হাতে তুলে দেয় তৃণমূল। স্থানীয় অনেকেই বলছেন, বাড়িটি কিন্তু অনেক দিনই পরিত্যক্ত। কারা পুনর্দখল করল এই ‘মন্দির’?
cpm

পুনরুদ্ধার করা হয়েছে সিপিএমের দফতর। দিনহাটায়। —নিজস্ব চিত্র।

ছিল বাম পার্টি অফিস। তৃণমূল দখল করে সেটি ‘বোল ব্যোম সমিতি’র হাতে তুলে দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। দফতরটি ভোল পাল্টে হয়ে যায় মন্দির। এক পাশে একটি শিবলিঙ্গও বসানো হয়। বৃহস্পতিবার কোচবিহারে তৃণমূলের হারের পরে দিনহাটার নিগমনগরের সেই ‘মন্দির’ই উদ্ধার করে সিপিএমের হাতে তুলে দেওয়া হল। 

সিপিএমের দাবি, বছরখানেক আগে বাড়িটি দখল করে ‘বোল ব্যোম সমিতি’র হাতে তুলে দেয় তৃণমূল। স্থানীয় অনেকেই বলছেন, বাড়িটি কিন্তু অনেক দিনই পরিত্যক্ত। কারা পুনর্দখল করল এই ‘মন্দির’? বিজেপি দাবি করেছে, তারা করেছে এই কাজ। তার পরে তুলে দিয়েছে সিপিএমের হাতে।

যদিও সিপিএমের ছাত্র সংগঠনের রাজ্য সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য শুভ্রালোক দাস বলেন, ‘‘নির্বাচনী ফল ঘোষণার পরে রাজ্যের শাসকদলের একটি অংশ পুরনো দল থেকে মুখ ফিরিয়ে নিতেই আমরা নিজেদের অফিসটি দখল করতে সক্ষম হই।’’ তৃণমূল অবশ্য অভিযোগ অস্বীকার করেছে। দলের দিনহাটা-১ ব্লক সভাপতি নুর আলম হোসেন বলেন, ‘‘নিগমনগরের আমবাড়ি এলাকার ওই পার্টি অফিসটি আমাদেরই তৈরি। সেটাই বিজেপি কর্মীরা দখল করে সিপিএমের হাতে তুলে দেয়।’’

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত