• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

বদল নাট্য অ্যাকাডেমিতে

Akademi
রাজ্য নাট্য অ্যাকাডেমি।—ফাইল চিত্র।

রাজ্য নাট্য অ্যাকাডেমিতে ব্যাপক রদবদল। সরানো হল অরুণ মুখোপাধ্যায়, ঊষা গঙ্গোপাধ্যায়, হরিমাধব মুখোপাধ্যায়ের মতো নাট্যব্যক্তিত্বদের। নাট্য জগতের একাংশের মন্তব্য, অরুণবাবুদের জায়গায় যাঁদের আনা হল, নাটকের জগতে তাঁরা কার্যত অপরিচিত।

তথ্য ও সংস্কৃতি দফতরের সচিব ৫ অগস্ট নতুন সদস্য তালিকায় স্বাক্ষর করেছেন। কিন্তু কাদের সিদ্ধান্তে রদবদল? কোথায়, কবে, কোন বৈঠকে তা স্থির হল, কিছুই স্পষ্ট নয়। দায়ও নিতে চাইছেন না সদস্যদের কেউই। নাট্য অ্যাকাডেমির বর্তমান সভাপতি মনোজ মিত্রের বক্তব্য, ‘‘আমি অসুস্থ। তথ্য সংস্কৃতি দফতর থেকে নতুন তালিকা পেয়েছি। যাঁদের সরানো হয়েছে, তাঁদের কেন সরানো হল বলতে পারব না। খোঁজ নিতে হবে।’’ অন্যতম সদস্য অর্পিতা ঘোষ বলেছেন, ‘‘নির্বাচনের পর থেকে রাজনৈতিক কাজে খুব ব্যস্ত। এ বিষয়ে কোনও খবরই রাখি না।’’ আর এক প্রাক্তন সভাপতি তথা মন্ত্রী ব্রাত্য বসু বলেন, ‘‘২০১৬ সালে নাট্য অ্যাকাডেমিতে যখন পরিবর্তন হয়েছিল, তখনও আমার কোনও প্রতিক্রিয়া ছিল না। ’’

বাদ পড়ে অরুণ মুখোপাধ্যায় অবশ্য জানান, দীর্ঘদিন তিনি অ্যাকাডেমির কোনও বৈঠকে যাননি। ফলে তাঁকে কেন সরিয়ে দেওয়া হল, তা নিয়ে তাঁর কোনও প্রশ্ন নেই। আর হরিমাধববাবুর বক্তব্য, ‘‘বাম আমল থেকে নাট্য অ্যাকাডেমির সদস্য ছিলাম। তখন অনেক কাজ করতাম। নন্দীগ্রাম-পর্বে ছেড়ে দিই। নতুন আমলে ফের সদস্য করা হলেও মিটিংয়ে যেতে পারতাম না। কারণ, দু’দিন আগে মিটিংয়ের সময় জানানো হত।’’ ঊষা গঙ্গোপাধ্যায়ের সঙ্গে যোগাযোগ করা যায়নি।

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন