মাঝেরহাট সেতু ভাঙার পর থেকে সেখানে চক্ররেলের পরিষেবা বন্ধ রয়েছে। ভিন্ রাজ্যের তীর্থযাত্রীদের কথা ভেবে গঙ্গাসাগর মেলার কয়েক দিন এ বার ওই পথেই ট্রেন চালানো শুরু করতে চলেছেন রেল কর্তৃপক্ষ।

সেতুর বিকল্প হিসেবে নিউ আলিপুরের কাছে লেভেল ক্রসিং তৈরির পরে মাঝেরহাট থেকে বালিগঞ্জের দিকে ট্রেন চালানো সম্ভব হবে না বলে জানিয়েছিলেন রেলকর্তারা। রেল সূত্রের খবর, অন্য রাজ্য থেকে আসা তীর্থযাত্রীদের বড় অং‌শ গঙ্গাসাগরে যাওয়ার জন্য প্রিন্সেপ ঘাটে শিবির করেন। তাঁদের কথা ভেবেই রাজ্য সরকার বিশেষ ট্রেন চালানোর জন্য রেলকে অনুরোধ করে। সেই মতো গত রবিবার চক্ররেলের লাইন থেকে ভেঙে পড়া সেতুর অংশ কেটে সরিয়ে ফের তা ট্রেন চলাচলের উপযুক্ত করা হয়।

রেল সূত্রের খবর, গঙ্গাসাগরে মকর সংক্রান্তির স্নানের জন্য আজ, শনিবার থেকে বুধবার পর্যন্ত একাধিক বিশেষ ট্রেন চালাবে পূর্ব রেল। এর মধ্যে আজ থেকে সোমবার পর্যন্ত প্রতিদিন সকাল ৭টা ৩৫ মিনিট এবং রাত সাড়ে ৯টায় কলকাতা স্টেশন থেকে দু’টি ১২ কামরার ট্রেন ছেড়ে বি বা দী বাগ হয়ে প্রিন্সেপ ঘাটে যাবে। সেখান থেকে তীর্থযাত্রীদের নিয়ে মাঝেরহাট-বালিগঞ্জ হয়ে নামখানা পর্যন্ত যাবে।

তবে আগামী মঙ্গলবার, মকর সংক্রান্তির দিন বাগবাজার-প্রিন্সেপঘাট পর্যন্ত ভোর ৪টে থেকে বিকেল ৩টে পর্যন্ত ট্রেন চলবে না। গঙ্গাস্নানে আসা তীর্থযাত্রীদের কথা ভেবে এই সিদ্ধান্ত। তার বদলে ওই দিন শিয়ালদহ থেকে সকাল ৮টা ৪৫ মিনিটে নামখানা যাওয়ার বিশেষ ট্রেন ছাড়বে। আগামী শনিবার থেকে বুধবারের মধ্যে যাঁরা শিয়ালদহ থেকে গঙ্গাসাগর যেতে চান, তাঁদের জন্য সকাল ৬টা ১৫ মিনিট, দুপুর ২টো ৪০ মিনিট এবং বিকেল ৪টে ২৪ মিনিটে নামখানাগামী ট্রেন ছাড়বে। ফিরতি পথে নামখানা থেকে সকাল ৯টা ১০ মিনিট, ১১টা ১৮ মিনিট, সন্ধ্যা ৬টা ৩৫ মিনিট, ৭টা ৫ মিনিট এবং রাত ২টো ৫ মিনিটে ট্রেন ছাড়বে। এ ছাড়াও মেলা ফেরত তীর্থযাত্রীদের কথা ভেবে ১২-১৬ তারিখের মধ্যে প্রতিদিন চারটি করে ট্রেনের যাত্রাপথ নামখানা পর্যন্ত বাড়ানো হয়েছে।