অবশেষে খাগড়াগড় বিস্ফোরণের অন্যতম অভিযুক্ত আজহার আলি ওরফে আজহারউদ্দিন আহমেদকে বরপেটা থেকে গ্রেফতার করল অসম পুলিশ। এত দিন ছদ্মবেশে বিভিন্ন রাজ্যে আত্মগোপন করে ছিল আজহার। জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা (এনআইএ)এ রাজ্যের পুলিশ হন্যে হয়ে খুঁজছিল আজহারকে। বেশ কয়েকবার একটুর জন্যে হাতের নাগালে পেয়েও ফসকে যায় সে।

ধৃত ওই যুবক মূলত অসমের বাসিন্দা। অসম পুলিশ একটি সূত্র মারফত খবর পায়, বরপেটায় আসছে আজহার। এ বার আর ভুল হয়নি। বুধবার তাকে বরপেটা থেকে গ্রেফতার করে অসম পুলিশ

২০১৪ সালে খাগড়াগড় বিস্ফোরণের পর আজহারের বিষয়েপ্রথম জানতে পারে গোয়েন্দারা। উত্তর-পূর্বের রাজ্যগুলিতে সংগঠন দেখভালের দায়িত্বে ছিল তার উপরে সে। একটা সময় তার সঙ্গে খাগড়াগড় কাণ্ডের মূল চক্রীকওসরের ঘনিষ্ঠ যোগাযোগ তৈরি হয়। বিস্ফোরক বানাতে পারে আজহার। অসম পুলিশের হেফাজতে থাকলেও, তাকে নিজেদের হেফাজতে নিতে চায় এনআইএ।

আজহারের গ্রেফতারিকেবড়সড় সাফল্যে বলেই মনে করছে অসম পুলিশ। এতদিন সে কোথায় ছিল, নতুন কোনও মডিউল তৈরির চেষ্টা হয়েছে কিনা, সবটাই খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

আরও পড়ুন-রাজ্যের পুলিশে অনাস্থা, ধনখড়ের নিরাপত্তায় সিআরপিএফ, কখনও দেখিনি, বললেন সুব্রত

 

 

আরও পড়ুন-মৎস্যজীবী উদ্ধারের পরে সীমান্তে বিএসএফ-কে গুলি বাংলাদেশি বাহিনীর, মৃত্যু জওয়ানের, জখম ১