বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার ঘটনায় তিনি মর্মাহত বলে জানালেন রাজ্যপাল তথা কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য কেশরীনাথ ত্রিপাঠী।

বুধবার প্রেস-বিবৃতিতে রাজ্যপাল জানান, বিদ্যাসাগর কলেজে ভাঙচুরের ঘটনায় তিনি অত্যন্ত ব্যথিত। দোষীদের দ্রুত খুঁজে বার করে উপযুক্ত শাস্তি দিতে বলেছেন তিনি। বলেছেন, বিদ্যাসাগরের মূর্তি দ্রুত পুনঃস্থাপনের বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয়-কর্তৃপক্ষকে তৎপর হতে হবে। বিদ্যাসাগর কলেজে হামলা এবং বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার প্রতিবাদে সরব হয়েছেন নবান্নের কর্মচারীরাও।

বুধবার ছুটির পরে কর্মচারী ফেডারেশনের সদস্যেরা বর্ণপরিচয় হাতে নিয়ে সমাবেশ করেন। মূর্তি ভাঙায় যুক্ত হামলাকারীদের ধিক্কার জানান। ওই ঘটনায় জড়িতদের অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানান তাঁরা। ফেডারেশনের নেতা সৌম্য বিশ্বাস জানান, যারা মূর্তি ভেঙেছে, তাদের শাস্তি দিতে হবে। নবান্ন বাসস্ট্যান্ডের ওই সমাবেশে শ’‌দেড়েক সরকারি কর্মী উপস্থিত ছিলেন।

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯