• নিজস্ব সংবাদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ছ’বছর পরে বাড়তি ভাড়া পাতাল সফরে

Kolkata Metro
প্রতীকী ছবি।

Advertisement

দীর্ঘদিন ধরেই ভাড়া বাড়ানোর দাবি উঠছিল। ছ’বছর পরে কলকাতায় মেট্রো-সফরের খরচ বাড়ছে। মঙ্গলবার সন্ধ্যায় মেট্রোর তরফে নতুন ভাড়ার হার ঘোষণা করা হয়েছে। তা কার্যকর হবে আগামী ৫ ডিসেম্বর থেকে।

তবে ভাড়ার হার পুনর্বিন্যাস করা হয়েছে মেট্রোর সর্বনিম্ন ভাড়া (পাঁচ টাকা) এবং সর্বোচ্চ ভাড়া (২৫ টাকা) অপরিবর্তিত রেখেই। অর্থাৎ বদলটা হয়েছে মাঝখানের দূরত্ব-ভিত্তিক ভাড়া বিভাজনে। এখন পাঁচ কিলোমিটার পর্যন্ত যেতে মাত্র পাঁচ টাকা খরচ হয়। নতুন ব্যবস্থায় ওই টাকায় দুই কিলোমিটারের বেশি যাওয়া যাবে না।

পরের ধাপে ২-৫ কিলোমিটার দূরত্বের জন্য ভাড়া দিতে হবে ১০ টাকা। তার পরের ধাপে ৫-১০ কিলোমিটার দূরত্বের জন্য ১৫ টাকা দিতে হবে। ওই দূরত্ব যেতে এখন খরচ হয় ১০ টাকা। এর পরের পর্বে, ১০ থেকে ২০ কিলোমিটারের জন্য ২০ টাকা দিতে হবে। ওই দূরত্বের ভাড়া এখন ১৫ টাকা। তার বেশি দূরত্ব সফর করলে গুনতে হবে ২৫ টাকা। মোটের উপরে পাঁচ টাকা ভাড়া বাড়ছে।

মেট্রো সূত্রের খবর, আগে একাধিক বার ভাড়া বৃদ্ধির প্রস্তাব পাঠানো হয়েছিল দিল্লিতে। কিন্তু নানা কারণে এত দিন তা বলবৎ করা হয়নি। অবশেষে মেট্রো-কর্তৃপক্ষের তরফে পাঠানো ভাড়ার প্রস্তাবে রেল মন্ত্রকের ফিনান্স ডিরেক্টরেটের ছাড়পত্র মেলায় এ বার ভাড়ার বর্ধিত হার কার্যকর হতে চলেছে। ভাড়া বাড়ানোর কারণ হিসেবে আনুষঙ্গিক সব কিছুর মূল্যবৃদ্ধির কথাই বলছে রেল।

এর আগে পাতালপথে শেষ বার ভাড়া বেড়েছিল ২০১৩ সালের নভেম্বরে। সাধারণ ভাবে কলকাতা মেট্রোয় দু’টি স্টেশনের মধ্যে দূরত্ব গড়ে ১.২ কিলোমিটার হলেও নোয়াপাড়া থেকে দমদম এবং দমদম থেকে বেলগাছিয়া স্টেশনের দূরত্ব দুই কিলোমিটারের বেশি। ফলে নোয়াপাড়া, দমদম ও বেলগাছিয়ার মধ্যে পরপর যে-কোনও দু’টি স্টেশনের মধ্যে সফর করলে দিতে হবে ১০ টাকা। ভাড়ার নতুন হার অনুযায়ী পাঁচ টাকা খরচ করে আর একাধিক স্টেশনের মধ্যে যাতায়াত করা সম্ভব হবে না। নির্দিষ্ট ভাবে ২০ কিলোমিটার পথ সফরের জন্য ভাড়ার হার আগের মতো একই থাকলেও দূরত্ব তার চেয়ে বেশি হলে দিতে হবে ২৫ টাকা। আগে ২৫ কিলোমিটারের বেশি দূরত্বে ওই ভাড়া দিতে হত। কলকাতায় উত্তর-দক্ষিণ মেট্রোর যাত্রাপথের দৈর্ঘ্য ২৬.৫ কিলোমিটার। ফলে খুব অল্প সংখ্যক যাত্রী, যাঁরা ২৫ কিলোমিটারের বেশি দূরত্ব যাতায়াত করেন, তাঁদের ক্ষেত্রে ভাড়া অপরিবর্তিত থাকছে। 

২০১৮-১৯ আর্থিক বছরে মেট্রোর ১০০ টাকা আয় করার জন্য খরচ হয়েছে ২৪৮ টাকা! যাত্রী পরিষেবা উন্নত করার স্বার্থেই মেট্রোয় ভাড়া দাবি জানানো হচ্ছিল। গত কয়েক বছরে মেট্রোয় যাত্রী-সংখ্যা অনেকটাই বেড়েছে। এখন দৈনিক গড়ে সাত লক্ষের বেশি যাত্রী মেট্রোয় চড়েন।

দিল্লি মেট্রোয় ০-২ কিলোমিটার সফরের ভাড়া ১০ টাকা। ২-৫ কিলোমিটার যেতে ফেজ ওয়ানে ১৫ এবং ফেজ টু-তে ২০ টাকা দিতে হয়। ফেজ ওয়ান এবং ফেজ টু-তে ৫-১২ কিলোমিটার যাওয়ার খরচ যথাক্রমে ২০ এবং ৩০ টাকা। ১২-২১ কিলোমিটারের জন্য যথাক্রমে ৩০ এবং ৪০ টাকা দিতে হয়। ২১-৩২ কিলোমিটারের ক্ষেত্রে ভাড়া যথাক্রমে ৪০ এবং ৫০ টাকা। তুলনায় কলকাতা মেট্রোর ভাড়া এখনও অনেকটাই কম। এ দিন মেট্রো রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক ইন্দ্রাণী বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘প্রায় ছ’বছর পরে মেট্রোর ভাড়া বাড়ানো হল। আগামী মাস থেকে নতুন বাতানুকূল রেক চালু হচ্ছে। প্রায় ৮০ শতাংশ যাত্রায় এসি রেক ব্যবহার করা যাবে বলে আশা করছি আমরা।’’

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন