প্রতিবাদে সাইনবোর্ড থেকে সরল পতাকা
তৃণমূল সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার কসবার গীতাঞ্জলি স্টেডিয়ামে দলের একটি অনুষ্ঠানের আগে এলাকায় পতাকা লাগানো হয়েছিল।
TMC FLAGS

বৃহস্পতিবার কসবার গীতাঞ্জলি স্টেডিয়ামে দলের একটি অনুষ্ঠানের আগে এলাকায় পতাকা লাগানো হয়েছিল। প্রতীকী ছবি।

দেওয়াল লিখন নিয়ে বিরোধ নয়। একটি কনফেকশনারি দোকানের সাইনবোর্ডের সঙ্গে দলীয় পতাকা লাগানোর অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। কসবা এলাকার ওই দোকানের মালিক ঋদ্ধিমা খন্না বাসা তাঁর দোকানের সাইনবোর্ডে লাগানো পতাকার ছবি দিয়ে ফেসবুকে প্রতিবাদ জানিয়েছেন। দোকান-মালিকের অনুমতি না-নিয়ে পতাকা লাগানোর কথা স্বীকার করেছেন স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্ব। একই সঙ্গে তাঁদের দাবি, ওই দোকানের মালিক আপত্তি জানানোর ঘণ্টাখানেকের মধ্যে পতাকা খুলে দেওয়া হয়েছে। পরে ফেসবুক থেকে পোস্টটি সরিয়ে নিয়েছেন দোকানের মালিকও। বিষয়টি নিয়ে পুলিশের কাছে কোনও অভিযোগ দায়ের হয়নি।

ফেসবুকে ঋদ্ধিমা লেখেন, তাঁর অনুমতি ছাড়াই কার্যত জোর করে দোকানের সাইনবোর্ডের সঙ্গে পতাকা লাগানো হয়েছিল। তিনি প্রতিবাদ করায় হুমকি দেওয়া হয়। তাঁর বক্তব্য, কোনও বিশেষ রাজনৈতিক দলের সঙ্গে তিনি তাঁর দোকানকে জুড়তে চান না। এমন ঘটনা ঘটতে থাকলে এই শহরে বাণিজ্যের ভবিষ্যৎ কী দাঁড়াবে, সেই প্রশ্নও তুলেছেন তিনি। 

তৃণমূল সূত্রের খবর, বৃহস্পতিবার কসবার গীতাঞ্জলি স্টেডিয়ামে দলের একটি অনুষ্ঠানের আগে এলাকায় পতাকা লাগানো হয়েছিল। ওই দোকানটি যে-বহুতলে রয়েছে, সেখানেও তখনই পতাকা লাগানো হয়। স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর সুশান্ত ঘোষ জানান, ওই দোকান-মালিকের অনুমতি নেওয়া হয়নি। তবে যে-বহুতলের একতলায় দোকানটি রয়েছে, তার মালিকদের কাছ থেকে অনুমতি নিয়েছিলেন তাঁরা। তা সত্ত্বেও দোকান-মালিক আপত্তি তোলার ঘণ্টাখানেকের মধ্যে পতাকা সরিয়ে দেওয়া হয়। স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের পাল্টা দাবি, দোকানের সামনে ফুটপাত নিয়ে পুরনো গোলমালের জেরে এমন অভিযোগ করা হয়েছে। 

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত