‘ফেসবুক লাইভে’ প্রার্থী, প্রশ্নে উড়ালপুল-ভাঙন
কাটোয়ার প্রান্তিকপাড়ার তপন চক্রবর্তী প্রশ্ন করেন যানজট সমস্যা নিয়ে। রেলগেটে উড়ালপুলের দাবি জানান তিনি। অগ্রদ্বীপের লালন শেখ আবার ভাগীরথী ভাঙন রোধে দীর্ঘমোদী পরিকল্পনা নেওয়ার বিষয়ে প্রার্থীর ভাবনা জানতে চান।
facebook

এসেছে এমনই প্রশ্ন। নিজস্ব চিত্র

রেলগেটে যানজট, তাঁত শ্রমিকদের সমস্য থেকে শুরু করে চালু না হওয়া কাটোয়া তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র— ‘ফেসবুক লাইভে’ ভোটারদের এমন নানা প্রশ্নের মুখোমুখি হলেন বর্ধমান পূর্বের সিপিএম প্রার্থী ঈশ্বরচন্দ্র দাস। একসঙ্গে অনেক মানুষের কাছে পৌঁছে যেতেই এই উদ্যোগ বলে জানিয়েছেন প্রার্থী। যদিও তৃণমূল প্রার্থী সুনীল মণ্ডলের কটাক্ষ, ‘‘ওঁরা মানুষের পাশে নেই, তাই স্টুডিয়োর মধ্যে বসে কথা বলতে হচ্ছে। আমরা পথেঘাটে প্রচারে আছি, আমাদের সোশ্যাল মিডিয়ায় ভরসা করতে হয় না।’’

সিপিএম প্রার্থীর সমর্থনে ইতিমধ্যেই সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইটে দুটি ‘পেজ’ খুলেছেন দলের কর্মীরা। মঙ্গলবার রাতে ‘ভোট ফর ঈশ্বরচন্দ্র দাস’ নামে একটি পেজ থেকে সরাসরি কথা বলেন তিনি। ৫৮ মিনিটের ভিডিয়োটি ৭৪৮১ জন দেখেছেন ও শেয়ার করেছেন বলে দাবি দলীয় নেতৃত্বের। দলীয় সূত্রে খবর, গত ১১ থেকে ১৪ এপ্রিল প্রার্থীর সমর্থনে ওই পেজে ভোটারদের কাছে প্রশ্ন চাওয়া হয়। দু’শোটি প্রশ্ন জমা পড়ে। এ দিন তারই কয়েকটার উত্তর দেন প্রার্থী।

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

কাটোয়ার প্রান্তিকপাড়ার তপন চক্রবর্তী প্রশ্ন করেন যানজট সমস্যা নিয়ে। রেলগেটে উড়ালপুলের দাবি জানান তিনি। অগ্রদ্বীপের লালন শেখ আবার ভাগীরথী ভাঙন রোধে দীর্ঘমোদী পরিকল্পনা নেওয়ার বিষয়ে প্রার্থীর ভাবনা জানতে চান। কালনার তৃণা চক্রবর্তী শিল্পক্ষেত্রের বর্তমান পরিস্থিতিতে আলোকপাত করতে বলেন। প্রার্থীর জবাব, ‘‘বাম সরকারের আমলে তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্র তৈরির জন্য জমি অধিগ্রহণ থেকে শুরু করে পাঁচিল দিয়ে জমি ঘেরা, আধিকারিকদের আবাসন তৈরি হয়েছিল। তৃণমূল ক্ষমতায় আসতেই তাপবিদ্যুৎ কেন্দ্রের কাজ বন্ধ হয়ে গেল।’’ বেকারত্ব ঘোচাতে বামপন্থীদের ভাবনা নিয়ে প্রশ্ন করেন কাটোয়ার বিধানপল্লীর রমেন মণ্ডল। পূর্বস্থলীর পারুলিয়া পঞ্চায়েতে জল নিকাশি সমস্যা, ছাত্র-যুবদের জন্য কি পরিকল্পনা এ সব প্রশ্নও আসে একের পর এক। প্রার্থীর জবাব, জিতে ক্ষমতায় এলে এ সব সমস্যার সমাধান করবেন তাঁরা। ধাত্রীগ্রামের এক জন মম্তব্য করেন, তৃণমূল সরকারের আমলে অনেক কর্মসংস্থান হয়েছে। প্রার্থী তার উত্তরে টেনে আনেন সিঙ্গুরে কারখানা না হওয়ার প্রসঙ্গ।

জনসংযোগে এমন ভাবনা কেন? ঈশ্বরবাবু বলেন, ‘‘দেওয়াল লিখন, পথসভা তো আছেই। তবে সোশ্যাল মিডিয়ায় অল্প সময়ে অনেক মানুষের কাছাকাছি পৌঁছনো যায়। মানুষের স্বতঃস্ফূর্ত যোগদানে আমি আপ্লুত।’’

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত