বিদেশি নিয়ে খোঁচা মোদীর
বিতর্ক প্রথম তৈরি হয় রায়গঞ্জে তৃণমূল প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়ালের প্রচারের সময়ে। সেখানে টলিউডের অভিনেতাদের সঙ্গে বাংলাদেশি অভিনেতা ফেরদৌসও ছিলেন।
narendra modi

ছবি- এপি

তৃণমূলের প্রচারে বাংলাদেশি অভিনেতার প্রসঙ্গ নরেন্দ্র মোদীর মুখেও। শনিবার দক্ষিণ দিনাজপুরের বুনিয়াদপুরের সভা থেকে বলেন, ‘‘এখানে বিদেশিদের এনে ভোট প্রচার করা হচ্ছে। কখনও কি এই দেশে এমনটা হয়েছে? বিদেশিদের দিয়ে এখানে প্রচার করে নিজের তিজোরি (সিন্দুক) ভরা হচ্ছে। নিজের ভোট ব্যাঙ্ক ভরতে দিদি সব কিছুই করতে পারেন। বিদেশিদের দিয়ে প্রচারের এমন মডেল দেশ তথা বাংলার জন্য ঠিক নয়।’’ 

বিতর্ক প্রথম তৈরি হয় রায়গঞ্জে তৃণমূল প্রার্থী কানাইয়ালাল আগরওয়ালের প্রচারের সময়ে। সেখানে টলিউডের অভিনেতাদের সঙ্গে বাংলাদেশি অভিনেতা ফেরদৌসও ছিলেন। এই ব্যাপারে অভিযোগ করা হলে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক ফেরদৌসকে ভারত ছাড়ার নির্দেশ দেয়। তাঁকে কালো তালিকাভুক্ত করা হয়। পরে ফেরদৌস এই নিয়ে একটি বিবৃতি দিয়ে ক্ষমা চান। একই সমস্যা হয় সিরিয়াল অভিনেতা গাজি নুরকে নিয়েও। অভিযোগ ওঠে, দমদম কেন্দ্রে তিনিও হাজির ছিলেন তৃণমূলের প্রচারে। এ দিন বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলেন খোদ প্রধানমন্ত্রী। মোদীর এই অভিযোগ নিয়ে তৃণমূলের জেলা সভাপতি বিপ্লব মিত্র বলেন, ‘‘যদি বিদেশিদের দিয়ে প্রচার করা হয়েই থাকে, তা হলে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা নেওয়া হোক।’’

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত