নিজস্বী, মালায় বরণ দেবশ্রীকে
রবিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত রায়গঞ্জের বাহিন, গৌরি, মাড়াইকুড়া, কমলাবাড়ি ১ ও ২ পঞ্চায়েতের ২৫টিরও বেশি গ্রামে নির্বাচনী প্রচার চালান দেবশ্রী।
Mask

মুখোশধারী: বিজেপি প্রার্থী দেবশ্রী চৌধুরীর মিছিলে। নিজস্ব চিত্র

কেউ প্রার্থীকে কাছে পেয়ে তুললেন নিজস্বী, কেউ আবার তাঁর গলায় পরিয়ে দিলেন ফুলের মালা। কোথাও আবার বাসিন্দারা প্রার্থীকে ঘিরে ধরে তাঁর মাথায় ফুল ছড়িয়ে দিলেন। রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্রের বিজেপি প্রার্থী দেবশ্রী চৌধুরীর রবিবাসরীয় প্রচারে দিনভর দেখা গেল এমনই দৃশ্য।

রবিবার সকাল সাড়ে ১০টা থেকে রাত ৮টা পর্যন্ত রায়গঞ্জের বাহিন, গৌরি, মাড়াইকুড়া, কমলাবাড়ি ১ ও ২ পঞ্চায়েতের ২৫টিরও বেশি গ্রামে নির্বাচনী প্রচার চালান দেবশ্রী। এ দিন সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ রায়গঞ্জের মধ্যমোহনবাটী মোড় এলাকা থেকে একটি ছোটগাড়িতে প্রচারে বার হন তিনি। প্রথমেই তিনি যান বাহিনের বারোদুয়ারিমোড়ে। দেবশ্রীকে কাছে পেয়ে শুরু হয় নিজস্বী তোলা। দেবশ্রী অবশ্য কাউকেই হতাশ করেননি। এলাকায় পদযাত্রা করে বাড়ি বাড়ি প্রচার চালান তিনি। পরে তিনি যান ওই পঞ্চায়েতেরই পকম্বা, ঝিটকিয়া, চাপদুয়ার, ভাতঘরা ও সুভাষগঞ্জে। এ সময় অনেকেই তাঁর গলায় গাঁদা ফুলের মালা পরান, স্লোগান ওঠে ‘জয়শ্রী রাম’ ও ‘ভারতমাতার জয়’। এরপর দেবশ্রী মাড়াইকুড়া পঞ্চায়েতের শ্যামপুরমোড়, পদ্মপুকুর, নরমকলোনি, হাতিয়া ও টেনহরি এলাকায় পদযাত্রা করে, বাড়ি বাড়ি গিয়ে চালান নির্বাচনী প্রচার। একাধিক এলাকায় বাসিন্দারা তাঁর মাথায় ছড়িয়ে দেন গাঁদা ফুল। এরপর একই কায়দায় প্রচার করেন কমলাবাড়ি ১ ও ২ পঞ্চায়েতের কর্ণজোড়া কালীবাড়ি, মিশনমোড়, ঠুনঠুনিমোড়, ঠাকুরবাড়ি, মেহেন্দিগ্রাম, পিরোজপুর, বোগ্রাম, ছত্রপুর, উদয়পুর ও চণ্ডিতলা এলাকায়। সেখানে আবার দেখা যায় অন্য দৃশ্য। নরেন্দ্র মোদীর মুখোশ পরে বাসিন্দাদের একাংশ তাঁর সঙ্গে সামিল হন পদযাত্রায়।

এ দিন দেবশ্রী বলেন, ‘‘কেন্দ্রে উন্নয়নশীল সরকার গড়ে তুলতে নরেন্দ্র মোদীকে মনে করে আপনারা আমাকে ভোট দিন। আমি তো মোদীজিরই একজন সৈনিক।’’

দিল্লি দখলের লড়াইলোকসভা নির্বাচন ২০১৯ 

২০১৯ লোকসভা নির্বাচনের ফল

আপনার মত