বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রীর সাম্প্রতিক বক্তৃতার ব্যাখ্যা নিয়ে সংবাদপত্রের বিরুদ্ধে অধিকারভঙ্গের অভিযোগ দায়ের করছে না তৃণমূল। শুক্রবার বিধানসভায় এই সিদ্ধান্ত জানিয়ে দিয়েছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজেই। তিনি বলেন, ‘‘আমরা সংবাদমাধ্যমের কাজে হস্তক্ষেপ করি না। তবে বিধানসভার নথি নিয়েও কারও ছেলেখেলা করা যায় না।’’

গত বুধবার বিধানসভায় মুখ্যমন্ত্রী বলেছিলেন, ‘‘মান্নানভাই ( কংগ্রেসের আবদুল মান্নান) সুজনদা ( সিপিএমের সুজন চক্রবর্তী) আমাদের এক সঙ্গে আসা দরকার। সিপিএম আমার সঙ্গে ঝগড়া করতে পারে। কংগ্রেস আমার সঙ্গে ঝগড়া করতে পারে। কিন্তু দেশটা ওরা ভেঙে তছনছ করে দেবে তা আমি বিশ্বাস করি না।’’ শাসক তৃণমূলের অভিযোগ ছিল, বিভিন্ন সংবাদপত্রে মুখ্যমন্ত্রী সিপিএম ও কংগ্রেসের সঙ্গে জোট তৈরি করতে চান বলে ইঙ্গিত করা হয়েছে। এ সম্পর্কে বিরোধীদের প্রতিক্রিয়ার ভিত্তিতেও খবর লেখা হয়েছে। এটা ‘তথ্য বিকৃতি’। কারণ মুখ্যমন্ত্রী সাম্প্রতিক রাজনীতির পরিপ্রেক্ষিতে একসঙ্গে প্রতিবাদের কথা বলেছেন। তিনি কোনও জোটের কথা বলেননি বলে দাবি শাসকদলের। এ সংক্রান্ত নোটিস জমা করেও মুখ্যমন্ত্রীর ওই ঘোষণার পর তা প্রত্যাহার করে নিয়েছেন পরিষদীয়মন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তবে মমতা বলেন, ‘‘সংবাদমাধ্যম হাজারবার সমালোচনা করুক। কিন্তু প্রকৃত ঘটনা বলুক।’’