নোট বাতিলের পরে তিন বছরে দেশের অর্থনীতি বা সাধারণ মানুষের জীবনে কী উপকার হয়েছে, কেন্দ্রের বিজেপি সরকারকে নিশানা করে সেই প্রশ্ন তুললেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এবং কংগ্রেস নেতৃত্ব। তৃণমূল নেত্রী সরব হয়েছেন টুইটে। আর প্রদেশ কংগ্রেস নোট বাতিলের তৃতীয় বর্ষপূর্তি উপলক্ষে শুক্রবার প্রতিবাদ-সভা করেছে বিবাদি বাগে কোল ইন্ডিয়া দফতরের সামনে।

মমতা এ দিন টুইটে বলেছেন, ‘‘নোট বাতিলের ঘোষণা হওয়ার পরেই বলেছিলাম, এর ফলে অর্থনীতি ভেঙে পড়বে এবং লক্ষ লক্ষ মানুষের জীবনে বিপর্যয় নেমে আসবে। নামী অর্থনীতিবিদ, সাধারণ মানুষ এবং বিশেষজ্ঞেরা সবাই এখন এই ব্যাপারে একমত। রিজার্ভ ব্যাঙ্কের তথ্যও দেখিয়ে দিয়েছে, নোট বাতিল একটা ব্যর্থ পরিকল্পনা।’’ মুখ্যমন্ত্রীর আরও মন্তব্য, ‘‘ব্যাঙ্ক ক্ষতিগ্রস্ত, অর্থনীতিতে প্রবল মন্দা। কৃষক থেকে ছোট ব্যবসায়ী, যুবক থেকে গৃহবধূ— সকলে ক্ষতিগ্রস্ত।’’

প্রতিবাদ-সভায় প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি সোমেন মিত্র প্রশ্ন তুলেছেন, ‘‘নোট বাতিল করে কালো টাকা উদ্ধার হবে বলা হয়েছিল। কত কালো টাকা উদ্ধার হল? অর্থনীতির কী হাল? মোদী সরকারের কোনও ভাবনা আছে?’’ সভায় ছিলেন বাংলার ভারপ্রাপ্ত এআইসিসি-র নেতা গৌরব গগৈ ও প্রদেশ কংগ্রেসের শীর্ষ নেতৃত্ব। বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নানের মন্তব্য, ‘‘সিঙ্গুরে কৃষকদের উপরে পুলিশি নিপীড়নের সময়ে নন্দনে কেন চলচ্চিত্র উৎসব, এই নিয়ে প্রতিবাদে নেমেছিলেন তৃণমূল নেত্রী। যে নোট বাতিলের জেরে অনেকের জীবন গেল, সেই সিদ্ধান্ত ঘোষণার দিনটাতেই আজ চলচ্চিত্র উৎসব হচ্ছে!’’ নোট বাতিলের জেরে মৃতদের স্মরণে রিজার্ভ ব্যাঙ্কের দফতর পর্যন্ত মোমবাতি মিছিলও করেন কংগ্রেস নেতারা।