স্বামী বিবেকানন্দের জন্মদিনে তিনি জাতীয় ছুটি চান। আগেই এমন দাবি জানিয়েছিলেন তিনি। এ বার সেই দাবি নিয়ে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি দিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

তবে এ বার শুধু স্বামী বিবেকানন্দই নয়, নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মদিবসকেও জাতীয় ছুটির ঘোষণা করা হোক চিঠিতে সেটাও জানিয়েছেন তিনি মোদীকে।

মমতা শনিবার টুইট করে বলেন, “স্বামী বিবেকানন্দ এবং নেতাজি সুভাষ চন্দ্র বসু জাতীয় ও আন্তর্জাতিক আইকন। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে তাঁদের জন্মদিনকে জাতীয় দিবস হিসাবে ঘোষণা করার কথা জানিয়ে চিঠি দিয়েছি।”

 

আরও পড়ুন: হেলমেট না থাকায় সিভিক ভলান্টিয়ারের মার, মৃত ব্যবসায়ী

লোকসানের ভাগ নিলে চলবে ট্রেন, চিঠি দিয়েও পিছোল রেল

এ মাসেই ‘বিবেক চেতনা উত্সব’-এর সূচনা করেন মমতা। রাজ্য জুড়ে তা পালন করা হয়। বিবেক চেতনা উত্সব-এর উদ্বোধনীর দিনে তিনি ঘোষণা করেন, রাজ্যের ৩৪১টি ব্লক, ১১৮টি পুরসভা, ছ’টি পুর নিগম এবং কলকাতা পুরসভার ১৪৪টি ওয়ার্ডে বিবেক চেতনা উৎসব পালন করার জন্য এক কোটি ৯০ লক্ষ টাকা অনুদান দেওয়া হচ্ছে। একই ভাবে ২৩ জানুয়ারি সুভাষচন্দ্র বসুর জন্মদিন সারা রাজ্যে পালন করা হবে বলে জানান তিনি। তার জন্য খরচ ধরা হয়েছে এক কোটি ৩০ লক্ষ টাকা। অনুষ্ঠান সূচনার দিনেই মমতা প্রশ্ন তুলেছিলেন, স্বামীজি তো শুধু বাংলার নন। তিনি সকলের। তা হলে তাঁর জন্মদিনে কেন্দ্রীয় সরকার জাতীয় ছুটি ঘোষণা করবে না কেন?

আগামী বছরেই স্বামীজির শিকাগো বক্তৃতার ১২৫ বছর পূর্ণ হবে। সেই উপলক্ষে সল্টলেক স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠান পালিত হবে বলেও ওই দিন ঘোষণা করেন মমতা।