• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

মেট্রো ডেয়ারি-কাণ্ডে উঠল সিবিআই দাবি

metro dairy
ছবি: সংগৃহীত।

Advertisement

মেট্রো ডেয়ারির শেয়ার বিক্রির ‘দুর্নীতি’ প্রসঙ্গ এ বার উঠল বি‌ধানসভাতেও। দাবি উঠল কেলেঙ্কারির সিবিআই তদন্তেরও।

রাজ্য সরকার মেট্রো ডেয়ারির ৪৭% শেয়ার ৮৪.৫ কোটি টাকায় বিক্রি করেছিল কেভেন্টার্স সংস্থার কাছে। তারা আবার তার থেকে ১৫% শেয়ার সিঙ্গাপুরের একটি সংস্থাকে বিক্রি করে দেয় ১৭০ কোটি টাকায়। দু’বার বিক্রির তুলনামূলক অনুপাত দেখলে বোঝা যাচ্ছে, রাজ্য সরকার যে টাকায় শেয়ার বেচেছিল, অংশবিশেষ হাত বদল করে ক্রেতা সংস্থা তার চেয়ে বেশি লাভ তুলেছে। এর ফলে রাজ্য কোষাগারের ৫০০ কোটি টাকারও বেশি ক্ষতি হয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন প্রধান বিরোধী দলের সচেতক মনোজ চক্রবর্তী।

অধিবেশনের শুরুতেই সোমবার ‘পয়েন্ট অফ ইনফর্মেশন’ এনে মনোজবাবু মেট্রো ডেয়ারি সংক্রান্ত ‘দুর্নীতি’র সিবিআই তদন্ত দাবি করেন। কেন ইডি বারবার মেট্রো ডেয়ারির ফাইল চাওয়া সত্ত্বেও রাজ্য সরকার তা দিচ্ছে না, তা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। পরে বিধানসভার মিডিয়া সেন্টারেও একই অভিযোগ করে সিবিআইয়ের হাতে তদন্ত ভার দেওয়ার দাবি করেন মনোজবাবু। এই বিষয়ে যৌথ ভাবে মুলতবি প্রস্তাবও জমা দিয়েছে  বাম ও কংগ্রেস।

মেট্রো ডেয়ারির শেয়ার বিক্রির এই অনিয়ম নিয়ে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা করেছেন কংগ্রেস নেতা অধীর চৌধুরী। সেই প্রসঙ্গ টেনেই মনোজবাবুর বক্তব্য, ‘‘রাজ্য সরকার যদি ঠিক ভাবে টেন্ডার ডেকে শেয়ার বিক্রি করত, তা হলে ৫০০ কোটি টাকারও বেশি লাভ হত।’’

সভার পরে বাম পরিষদীয় দলনেতা সুজন চক্রবর্তী মনোজবাবুর দাবিকে সমর্থন করেই বলেন, ‘‘মেট্রো ডেয়ারি দুর্নীতি খুবই বড় কেলেঙ্কারি। সরকারের উচ্চতম মহলের কেউ কি কেভেন্টার্সের সঙ্গে যুক্ত হয়ে গিয়েছেন? যার জন্য ফাইল কিছুতেই প্রকাশ করা হচ্ছে না? কারা এই ফাইল লুকিয়ে রেখেছে, জানতে চাই।’’

এবার শুধু খবর পড়া নয়, খবর দেখাও।সাবস্ক্রাইব করুনআমাদেরYouTube Channel - এ।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন