ভারতীয় পেসার মহম্মদ শামির বিরুদ্ধে তাঁর স্ত্রীর অভিযোগের পালা চলছেই।

মঙ্গলবার সকালে প্রচারমাধ্যমের উপর রণংদেহি মেজাজে ঝাঁপিয়ে পড়ে হাসিন ভেঙেছিলেন বৈদ্যুতিন প্রচারমাধ্যমের ক্যামেরা। সন্ধেয় সেই প্রচারমাধ্যমের কাছেই দুঃখপ্রকাশ করলেন তিনি। সঙ্গে ফের অভিযোগের তিরও ছুড়ে দিলেন তাঁর স্বামীর দিকে। বললেন, ‘‘আমি একা লড়ছি নাম-যশ-প্রতিপত্তির বিরুদ্ধে। সত্য প্রকাশের জন্য এই লড়াইয়ে  মুখ্যমন্ত্রীকে পাশে চাই।’’

শামির বিরুদ্ধে এ বার হাসিনের অভিযোগ, ফোনে ও এসএমএস-এ তাঁকে হুমকি দিচ্ছেন তাঁর স্বামী। তবে এর আগে শামির রেকর্ড করা ‘কল’ প্রচারমাধ্যমকে শোনালেও, এ দিন কোনও শামির হুমকির কোনও রেকর্ডিং শোনাননি হাসিন। বলেন, ‘‘এসএমএস ও হোয়াটসঅ্যাপ কল করে শামি আমাকে হুমকি দিচ্ছে এখনও। পুলিশকে সব জানিয়ে নিরাপত্তা চেয়েছি। সমঝোতার কোনও রাস্তা নেই। আমি লড়তে চাই।’’

হাসিনের কথায়, ‘‘সোমবার শামি এসএমএস করে মেয়ে বেবো-র সঙ্গে কথা বলতে চায়। আমি উত্তর দিই, মেয়ের কথা মাথায় থাকলে তুমি এ রকম করতে না।’’ শামি-পত্নী সঙ্গে যোগ করেন, ‘‘মঙ্গলবার সকালেও হোয়াটসঅ্যাপ কল করে শামি। বলে, সন্তানের ভবিষ্যৎ ভেবে চুপ করে যাও। তোমার লজ্জা নেই?’’ যাঁর বিরুদ্ধে এই অভিযোগ সেই মহম্মদ শামির সঙ্গে এ দিন যোগাযোগের চেষ্টা করা হলে তিনি ফোন ধরেননি।

মঙ্গলবার বিকেলে হাসিন লালবাজারে গিয়ে পুলিশের কাছে বাড়তি নিরাপত্তার জন্য লিখিত আবেদন পেশ করেন। মহম্মদ শামির দাদার বিরুদ্ধে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ করেছিলেন হাসিন। গোয়েন্দাপ্রধান প্রবীণ ত্রিপাঠী এ দিন বলেন, ‘‘ওই অভিযোগের ভিত্তিতে হাসিন জাহানের মেডিক্যাল টেস্ট হবে।’’ লালবাজার সূত্রের খবর, আগামী সোমবার আলিপুর আদালতে বিচারকের সামনে গোপন জবানবন্দি দেবেন হাসিন। এ দিন তদন্তকারী আধিকারিকরা দীর্ঘক্ষণ জিজ্ঞাসাবাদ করেন হাসিনকে।  

আরও পড়ুন: ‘শামি মিথ্যে কথা বলছে, ওকে আমি খুব ভাল চিনি’

হাসিন এর আগে অভিযোগ করেছিলেন, শামি কোনও বাড়ি বা সম্পত্তিতে তাঁর মালিকানা রাখেননি। কিন্তু জানা গিয়েছে, সিউড়িতে হাসিনের নামে গত নভেম্বরে একটি বাড়ি কেনেন শামি। যে প্রসঙ্গে হাসিনের প্রতিক্রিয়া, ‘‘যখন রোজগার করতাম তখন আমার অর্থ শামির অ্যাকাউন্টে থাকত। সেই অর্থেই কেনা হয়েছিল ওই বাড়ি।’’

এই তথ্য সম্পর্কে শামির উত্তর যদিও মঙ্গলবার জানা যায়নি। যেহেতু শামি ফোনে সাড়া দেননি।