রাজ্যের লোকায়ুক্ত হিসেবে শপথ নিলেন কলকাতা হাইকোর্টের প্রাক্তন বিচারপতি অসীমকুমার রায়। রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী বৃহস্পতিবার রাজভবনে এক অনুষ্ঠানে তাঁকে শপথবাক্য পাঠ করান। এর আগে রাজ্যের প্রথম লোকায়ুক্ত ছিলেন প্রাক্তন বিচারপতি সমরেশ বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর মেয়াদ শেষ হওয়ার ন’বছর পরে অসীমবাবু সেই পদে এলেন। 

তিনি রাজ্যের স্বাস্থ্য কমিশনের চেয়ারম্যান ছিলেন। কী দেখবেন লোকায়ুক্ত? সরকারি সূত্রের খবর, মন্ত্রী, জনপ্রতিনিধি এবং সরকারের উচ্চ পদে আসীন ব্যক্তিদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠলে তার তদন্ত করবেন লোকায়ুক্ত। সরকারি পরিষেবা, পঞ্চায়েতের কাজকর্ম নিয়ে অভিযোগ থাকলে তাঁর কাছে তা-ও জানাতে পারেন সাধারণ মানুষ।

লোকায়ুক্ত নিয়োগ করতে দীর্ঘ ন’বছর দেরি হল কেন?

নবান্ন সূত্রে জানা গিয়েছে, বাম আমলে রাজ্যে প্রথম লোকায়ুক্ত আইন পাশ হয় ২০০৩ সালে। ২০০৬ সালে প্রাক্তন বিচারপতি সমরেশ বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রথম লোকায়ুক্ত নিয়োগ করা হয়। প্রথম দেড় বছর তাঁর কোনও অফিস ছিল না। ২০০৭ সালে অফিস পেয়ে কাজ শুরু করেন তিনি। বহু অভিযোগ এসেছিল। তদন্তও হয়েছিল। কাজ হয়নি। ২০০৯ সালে লোকায়ুক্তের অধীনে প্রধানমন্ত্রীকে আনার দাবিতে দেশ জুড়ে আন্দোলন শুরু হয়। অণ্ণা হজারের আন্দোলনে সেই আইন বদলায়। নতুন আইন খতিয়ে দেখতে সময় লেগেছে। তাই এত দিন রাজ্যের লোকায়ুক্ত নিয়োগ করা হয়নি।