• নুরুল আবসার ও সুব্রত জানা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ধর্ষণে অভিযুক্তের বাড়ি থেকে উড়ে এল কাটারি, বাগনানে জখম কিশোর

violence
অশান্ত: উলুবেড়িয়া কোর্টের সামনে মৃতার দেহ রেখে বিক্ষোভ (বাঁ দিকে)। বৃহস্পতিবারই ভাঙচুর চলল মূল অভিযুক্তের বাড়িতে (ডান দিকে উপরে)। বাগনানে কাটারিতে জখম কিশোর (ডান দিকে নীচে)। ছবি: সুব্রত জানা

মূল অভিযুক্ত কুশ বেরার বাড়ি থেকে উড়ে আসা কাটারির ঘায়ে এক কিশোরের জখম হওয়ার ঘটনায় বৃহস্পতিবার আরও তপ্ত হল বাগনানের পরিস্থিতি। কুশের স্ত্রী এবং দুই ছেলেকেও গ্রেফতারের দাবি উঠল। ভাঙচুর চালানো হল ওই বাড়িতে।

মঙ্গলবার রাতে গোপালপুর গ্রামে এক তরুণীকে তাঁদেরই বাড়ির ছাদে ধর্ষণের চেষ্টা করে দুই যুবক। তরুণীর চিৎকারে তাঁর মা সিঁড়ি দিয়ে ছাদে উঠতে গেলে তাঁকে ধাক্কা মেরে ফেলে দুই যুবক পালিয়ে যায়। বুধবার মারা যান তরুণীর মা। বাগনান-২ পঞ্চায়েতের তৃণমূল সদস্য রমা বেরার স্বামী কুশ এবং তার শাগরেদ বাচ্চু মণ্ডলকে পুলিশ গ্রেফতার করে।

বৃহস্পতিবার মৃতার দেহ নিয়ে উলুবেড়িয়া আদালত চত্বরে বিক্ষোভ দেখায় বিজেপি। দুই অভিযুক্তের পক্ষে কোনও আইনজীবী যাতে না-দাঁড়ান, সে দাবিও তোলে তারা। তার পরে দেহ গোপালপুরে ফিরিয়ে এনে কুশের বাড়ির সামনে বিক্ষোভ শুরু হয়। গ্রামবাসীরাও শামিল হন। বিক্ষোভকারীদের অভিযোগ, কুশের এক ছেলে তাঁদের লক্ষ্য করে কাটারি ছোড়ে। তা লাগে এক কিশোরের পায়ে। এর পরেই কুশের স্ত্রী রমা এবং তাঁর দুই ছেলে বাড়ি থেকে পালান। র‌্যাফ ও পুলিশ বাহিনী এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করে। পুলিশ দেহ শেষকৃত্যের জন্য নিয়ে যেতে চাইলে গ্রামবাসীরা বাধা দেন। পুলিশ কুশের স্ত্রী-ছেলেকে ধরার প্রতিশ্রুতি দিলে তাঁরা শান্ত হন।

আরও পড়ুন: করোনা রোগীর খরচের ঊর্ধ্বসীমা কত হবে? বৈঠক চায় বেসরকারি হাসপাতাল

আক্রান্ত তরুণী এ দিন উলুবেড়িয়া আদালতে গোপন জবানবন্দি দেন। দুই ধৃতকে ১৪ দিন জেল হাজতে রাখার নির্দেশ দেন বিচারক। 

এ দিন গ্রামবাসীরা তো বটেই, এলাকার তৃণমূল কর্মী-সমর্থকদের একাংশও কুশের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দেন। তাঁদের অভিযোগ, স্ত্রী দ্বিতীয় বার পঞ্চায়েত সদস্য হওয়ার পর থেকেই কুশের দাপট বাড়তে থাকে। সালিশি বা গ্রাম্য বিচারে তার কথাই ছিল শেষ কথা। প্রতিদিন রাতে কিছু শাগরেদকে নিয়ে রাস্তার ধারে সে মদের আসর বসাত। প্রতিবাদ করলে জুটত হুমকি। কথায় কথায় মারধর করা তার কাছে জলভাত। চালাত তোলাবাজিও। কুশের জন্য দলের ভাবমূর্তি নষ্ট হচ্ছিল বলেও দাবি অনেক তৃণমূল কর্মীর।

আরও পড়ুন: ১২ অগস্ট পর্যন্ত ট্রেন বন্ধ, মাসিক টিকিটের টাকা ফেরত না মেয়াদ বৃদ্ধি?

বাগনান-কাণ্ড নিয়ে প্রথম থেকেই সুর চড়িয়েছে বিজেপি। এ দিন ওই তরুণীর বাড়িতে যান বিজেপির মহিলা মোর্চার রাজ্য সভানেত্রী অগ্নিমিত্রা পল। তরুণীর সঙ্গে কুশের সম্পর্ক ছিল বলে মন্ত্রী অরূপ রায়ের মন্তব্যের নিন্দা করে তিনি বলেন, ‘‘মামলা লঘু করতে অরূপবাবু ওই মন্তব্য করেছেন। তৃণমূল শাসনে জঙ্গলের রাজত্ব চলছে।’’ তরুণীর পরিবারের সঙ্গে দেখা করে আমতার কংগ্রেস বিধায়ক অসিত মিত্র ও ‘গণতান্ত্রিক মহিলা সমিতি’র নেত্রী কনীনিকা ঘোষও অরূপবাবুর মন্তব্যের নিন্দা করেন। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন