• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পার্থের বৈঠকে খুশি, তবু অনশনে অনড় শিক্ষকেরা

Partha Chatterjee
পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

Advertisement

বিক্ষোভ অবস্থানের ৩২ দিন এবং অনশনের ২৭ দিনের মাথায় বুধবার পার্শ্ব শিক্ষকদের চারটি সংগঠনের সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের বৈঠক হল। কিন্তু কোনও সমাধানসূত্র মিলল না। সুরাহার আশ্বাস মিলেছে বলে জানিয়ে আন্দোলনকারীরা প্রথমে অনশন তোলার ইঙ্গিত দিলেও পরে মত বদলান। পার্শ্ব শিক্ষক ঐক্য মঞ্চের তরফে জানিয়ে দেওয়া হয়, মন্ত্রীর লিখিত আশ্বাস না-পেলে তারা অনশন-বিক্ষোভ চালিয়ে যাবে।

এ দিন বেলা ২টো নাগাদ বিকাশ ভবনে পার্শ্ব শিক্ষকদের চারটি সংগঠনের প্রতিনিধিদের  সঙ্গে আলোচনায় বসেন শিক্ষামন্ত্রী। তিন ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে বৈঠক চলে। ঐক্য মঞ্চের যুগ্ন আহ্বায়ক ভগীরথ ঘোষ তার পরেই বলেন, ‘‘খুব সদর্থক আলোচনা হয়েছে। মন্ত্রী সমস্যার কথা মন দিয়ে শুনেছেন। আমাদের বেতন-কাঠামো তৈরির জন্য উনি দেড় মাস সময় চেয়েছিলেন। আমরা মার্চ পর্যন্ত সময় দিয়েছি। আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কথা বলে আমরা হয়তো বৃহস্পতিবারেই অনশন তুলে নেব।’’

কিন্তু সুর বদলে যায় সংবাদমাধ্যমে শিক্ষামন্ত্রী তাঁর বক্তব্য জানানোর পরে। পার্থবাবু বলেন, ‘‘আমরা পার্শ্ব শিক্ষকদের বক্তব্য মন দিয়ে শুনেছি। যতটুকু সামাধানসূত্র বার করার, তা নিয়ে আমরা নিজেদের মধ্যে আলাপ-আলোচনা করব। কিন্তু ওঁদের বেতন-কাঠামো নিয়ে কোনও প্রতিশ্রুতি দিইনি। আমরা বিষয়টি অর্থ দফতর এবং মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে জানাব। আমরা পার্শ্ব শিক্ষকদের দ্রুত কাজে যোগ দিতে অনুরোধ করছি।’’ কোনও নির্দিষ্ট সময়সীমার মধ্যে দাবি পূরণের প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়নি বলেই জানান পার্থবাবু। মন্ত্রীর দাবি, তাঁদের সরকার পার্শ্ব শিক্ষকদের জন্য বেতন বৃদ্ধি-সহ নানা সুযোগ-সুবিধার বন্দোবস্ত করেছে। ‘‘সরকারের সদিচ্ছা আছে। এ ভাবে রাস্তায় বসে থাকাটা যে আমাদের কাছে আনন্দের নয়, এ দিন সেটা ওঁদের ভাল ভাবে বুঝিয়েছি,’’ বলেন পার্থবাবু।

শিক্ষামন্ত্রীর এই বিবৃতির পরে রাতে বিবৃতি দিয়ে ভগীরথবাবু বলেন, ‘‘সংবাদমাধ্যমে শিক্ষামন্ত্রী এখন যে-বিবৃতি দিলেন, তেমন কথা উনি আমাদের সঙ্গে বৈঠকে বলেননি। উনি নির্দিষ্ট সময়ের মধ্যে আমাদের বেতন-কাঠামো তৈরির বিষয়ে সদর্থক কথা বলেছিলেন। এই অবস্থায় দাবি পূরণ নিয়ে শিক্ষামন্ত্রী আমাদের বৈঠকে যা বলেছেন, সেই বিষয়ে লিখিত বিবৃতি ছাড়া অনশন আন্দোলন উঠবে না।’’ ভগীরথবাবু জানান, আজ, বৃহস্পতিবার তাঁরা আবার এই বিষয়ে অনশনকারী ও বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে আলোচনায় বসবেন।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন