• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

পার্শ্ব শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনায় রাজি পার্থ

partha
পার্থ চট্টোপাধ্যায়।

Advertisement

আন্দোলনরত পার্শ্ব শিক্ষকদের সঙ্গে আলোচনায় বসতে চান শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়। কিন্তু ধর্না না-তুললে আলোচনা সম্ভব কি না, শনিবার সে প্রশ্নও তুলেছেন তিনি।

শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে দেখা করতে চেয়ে শুক্রবার ফের চিঠি দিয়েছিলেন পার্শ্ব শিক্ষক ঐক্যমঞ্চের সদস্যেরা। এ দিন সেই প্রসঙ্গেই শিক্ষামন্ত্রী জানান, মঙ্গলবার দফতরে গিয়ে তিনি ওই চিঠি দেখবেন। পার্শ্ব শিক্ষকদের সব সংগঠনকে নিয়েই তিনি আলোচনায় বসতে চান। তবে
তাঁর প্রশ্ন, ‘‘যাঁর কাছে দাবি করছেন, তাঁর বিরুদ্ধেই রাস্তায় বসে পড়ছেন! এ কী করে সম্ভব?’’

পার্শ্ব শিক্ষক ঐক্যমঞ্চের যুগ্ম আহ্বায়ক মধুমিতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানিয়েছেন, শিক্ষামন্ত্রীর সঙ্গে আগে তাঁরা আলোচনা চাইছেন। আলোচনায় দাবিদাওয়া মিটলে তাঁরা আন্দোলনে ইতি টানবেন। তিনি বলেন, ‘‘২০১০ সালে ফলের রস খাইয়ে পার্শ্বশিক্ষকদের অনশন ভঙ্গ করিয়েছিলেন তৎকালীন বিরোধী দলনেতা পার্থবাবু। আমরা চাইছি, সেই পার্থবাবু এ বারও এসে আমাদের অনশন ভঙ্গ করান।’’

পার্থবাবু এ-ও জানান, পার্শ্ব শিক্ষকদের এমন রাস্তায় বসে থাকা তিনি মেনে নিতে পারছেন না। পার্শ্ব শিক্ষকদের উদ্দেশে তাঁর বক্তব্য,, ‘‘ধর্না প্রত্যাহার করুন। অনশন প্রত্যাহার করুন। পড়ুয়াদের পড়াশোনা বন্ধ করবেন না।’’ তাঁর দাবি, বিভিন্ন প্রকল্পে পার্শ্ব শিক্ষকেরা কাজ পেয়েছেন। এঁদের বেতন কাঠামো হয় না। পার্শ্ব শিক্ষকদের এই আন্দোলন এ দিন ২৭তম দিনে পড়েছে। শিক্ষামন্ত্রী এ দিন জানান, এই শিক্ষকেরা স্কুলে যাচ্ছেন না বলে অভিভাবকদের পক্ষ থেকে তাঁকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। তাঁর প্রশ্ন, ‘‘এ বার তাঁরা যদি রাস্তায় নেমে পড়েন?’’ মধুমিতাদেবীর অভিযোগ, পার্শ্ব শিক্ষকদের অনেককেই স্কুলে কাজে যোগ দিতে দেওয়া হচ্ছে না। অবস্থানের পাশপাশি পার্শ্ব শিক্ষকেরা স্কুল বয়কটও করে যাচ্ছিলেন। শুক্রবার পাঁচ দিনের জন্য স্কুল বয়কটের ডাক প্রত্যাহার করা হয়েছে।

সবাই যা পড়ছেন

Advertisement

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন