হাসপাতালে বুকের এক্স-রে করাতে গিয়েছিলেন রামলাল বাজারের বাসিন্দা তাপস দাস। পেলেন হাঁটুর রিপোর্ট! রবিবার অভিযুক্ত রবীন্দ্রনাথ টেগোর হাসপাতালের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ করেন তাপসবাবু। পুলিশ তাপসবাবুকে জানিয়ে‌ছে, হাসপাতাল ভুল স্বীকার করেছে। হাসপাতালের তরফেও জানানো হয়েছে, কিছু একটা সমস্যার জন্য এই ভুল হয়েছে। তাপসবাবুর অভিযোগ, ১৮ ফেব্রুয়ারি ওই হাসপাতালের এক চিকিৎসক তাঁর বুকের এক্স-রে করান। পরে রিপোর্ট আর এক্স-রে প্লেট নিয়ে আসেন। ২৫ ফেব্রুয়ারি তাপসবাবু অন্য হাসপাতালে যান। সেখানেও এক চিকিৎসক বুকের এক্স-রে করাতে বললে তাপসবাবু জানান, দিন কয়েক আগেই তিনি ওই এক্স-রে করিয়েছেন। রিপোর্ট দেখে চিকিৎসক জানান, প্লেটটি বুকের এক্স-রে’র হলেও রিপোর্টে লেখা রয়েছে দু’টি হাঁটুর বিবরণ! তাপসবাবুর কথায়, ‘‘চার দিকে যা হচ্ছে, তাই ঝুঁকি না নিয়ে থানায় জানিয়ে এসেছি।’’