মাদক মেশানো পানীয় খাইয়ে এক মহিলাকে গণধর্ষণ ও খুনের অভিযোগ উঠল তিন প্রতিবেশীর বিরুদ্ধে। কোচবিহারের হলদিবাড়িতে খালপাড়ার  ঘটনা। অভিযুক্ত তিন জনকেই ধরা হয়েছে। অভিযোগ, ধর্ষণের ঘটনাটি ঘটেছিল গত ১৮ মে। মহিলার স্বামী গিয়েছিলেন শিলিগুড়িতে সব্জি বিক্রি করতে। রাতে ফিরে স্ত্রীকে বাড়িতে দেখতে না পেয়ে ভেবেছিলেন, হয়তো কোনও পড়শির বাড়িতে গিয়ে প্রবল বৃষ্টিতে আটকে পড়েছেন। পর দিন সকালে গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় বছর ৪৫-এর ওই মহিলাকে পাওয়া যায় কাছের একটি বাঁশঝাড়ে। মঙ্গলবার রাতে উত্তরবঙ্গ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে মৃত্যু হয় তাঁর।

প্রতিবেশী কংগ্রেস মণ্ডল, হরিপদ মণ্ডল ও নিত্য মল্লিক বৃষ্টির মধ্যে বাড়িতে ঢুকে মাদক মেশানো বিয়ার খাইয়ে তাঁকে গণধর্ষণ করেছেন বলেপরিবারের লোকজনকে জানিয়েছিলেনওই মহিলা। পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে শুক্রবার তিন জন গ্রেফতার হয়। এলাকায় রাজনৈতিক চাপান-উতোরও শুরু হয়েছে এ নিয়ে। হলদিবাড়ি ব্লক তৃণমূল সভাপতি গোপাল রায় বলেন, “ওই মহিলার পরিবার তৃণমূল সমর্থক। অভিযুক্তরা সিপিএমের সমর্থক। দোষীদের কড়া শাস্তি চাই।” সিপিএমের জেলা সম্পাদক তারিণী রায় বলেন, “অভিযুক্তদের সঙ্গে দলের কোনও যোগ নেই। উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ভাবে অপপ্রচার করা হচ্ছে।”