• নিজস্ব সংবাদদাতা 
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

ডিজেল নিয়ে আন্দোলন, বেসরকারি বাস ঘিরে শঙ্কা

bus
প্রতীকী ছবি।

বেসরকারি বাস রাস্তায় নামা নিয়ে ফের আশঙ্কা তৈরি হল। আগামী ২৭ জুলাই থেকে প্রতি সোমবার রাজ্যের কোনও পেট্রল পাম্প থেকে তাঁদের সংগঠনের সদস্যরা ডিজেল কিনবেন না বলে বুধবার জানিয়েছে বেসরকারি বাসমালিকদের সংগঠন জয়েন্ট কাউন্সিল অব বাস সিন্ডিকেট। পরিবহণ দফতর অবশ্য ওই আন্দোলনকে এখনই গুরুত্ব দিতে নারাজ। পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে অন্যান্য দিনের মতোই বাড়তি বাস চালানো হবে বলে জানান কর্তারা।

আনলক পর্বে বাস ভাড়া নিয়ে রাজ্য সরকারের সঙ্গে টানাপড়েনে কম বাস নামছিল। দুর্ভোগে পড়ছিলেন সাধারণ মানুষ। সেই পরিস্থিতি কিছুটা স্বাভাবিক হতে না-হতেই ডিজেলের দাম নিয়ে আন্দোলনে নামতে চলেছেন বেসরকারি বাসমালিকদের একাংশ।

বুধবার বাসমালিকদের সঙ্গে বৈঠকের পরে সংগঠনের পক্ষ থেকে আন্দোলনের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয় বলে খবর। গত এক মাসে লিটার প্রতি ডিজেলের দাম ১১ টাকার বেশি বৃদ্ধি পাওয়ায় তাঁদের পক্ষে পরিষেবা দেওয়া অসম্ভব হয়ে উঠেছে বলে এ দিন জানান সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক তপন বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর কথায়, ‘‘করোনা আবহে গত চার মাস ধরে পরিবহণ শিল্পে সঙ্কট চলছে। বাস মালিকেরা কোনও কর ছাড় পাননি। তার মধ্যে ডিজেলের দাম বাড়াচ্ছে কেন্দ্র সরকার। আমরা কাউকে বাস বন্ধ রাখতে বলছি না। তবে ডিজেল না-কিনে প্রতিবাদ জানাচ্ছি।’’

তবে ডিজেল না-কেনার জন্য সপ্তাহের প্রথম কাজের দিন, সোমবার কেন বেছে নেওয়া হল, তার অবশ্য কোনও ব্যাখ্যা দিতে পারেননি তপনবাবু। শনি এবং রবিবার যাত্রী সংখ্যা কম থাকায় বাসের সংখ্যা রাস্তায় অনেকটাই কমে আসে। তুলনায় সোমবার যাত্রীদের সংখ্যা বাড়তে থাকায় বাসের চাহিদাও বাড়ে। এই অবস্থায় প্রত্যেক সপ্তাহে সোমবার করে বাসমালিকেরা ডিজেল না-কেনার সিদ্ধান্ত নিলে রাস্তায় বাসের সংখ্যা স্বাভাবিক ভাবেই কমে আসার আশঙ্কা থাকবে। যার পরিণামে সাধারণ যাত্রীদের হয়রানি বাড়বে।                  

সূত্রের খবর, এই আন্দোলনে জয়েন্ট কাউন্সিলকে প্রচ্ছন্ন সমর্থন দিতে পারে অন্যান্য সংগঠনও। ওয়েস্ট বেঙ্গল বাস মিনিবাস ওনার্স অ্যাসোসিয়েশনের যুগ্ম সম্পাদক প্রদীপনারায়ণ বসু বলেন, ‘‘আগামী সপ্তাহ থেকে ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধে আমরাও পথে নামব। রাজ্যপালকে আমরা চিঠি দিয়েছি। কেন্দ্রীয় অর্থমন্ত্রী এবং সড়ক পরিবহণ মন্ত্রীকে চিঠি দেওয়া হয়েছে। প্রয়োজনে পথ অবরোধ করা হবে।’’ মিনিবাস অপারেটর্স কো-অর্ডিনেশন কমিটির যুগ্ম সম্পাদক স্বপন ঘোষ বলেন, ‘‘ডিজেলের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে আমরাও আন্দোলনের পক্ষে। তবে কী ভাবে আন্দোলন হবে, তা এখনও ঠিক হয়নি।’’ ওয়েস্ট বেঙ্গল বাস মিনিবাস সমন্বয় সমিতির সাধারণ সম্পাদক রাহুল চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‘ডিজেল নির্দিষ্ট একদিন না-কেনার কী মানে তা স্পষ্ট হল না। ডিজেল কি তবে আগে কিনে রাখার কথা বলছেন ওঁরা? নাকি বাস বন্ধ রাখার কথা বলছেন, সেটা স্পষ্ট হওয়া জরুরি।’’

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন