অম্বানীদের সঙ্গে ফ্রান্সের ‘সম্পর্ক’ ঠিক কতটা গভীর তা বোঝাতে শুক্রবার কৈলাস যাত্রার আগে রীতিমতো বোমা ফাটিয়ে গিয়েছিলেন রাহুল গাঁধী। জানিয়েছিলেন, ফরাসি একটি সংস্থার সঙ্গে সিনেমা তৈরির চুক্তিও করেছিল অম্বানীরা। শনিবার দুপুরে বহরমপুরের কংগ্রেস কার্যালয়ে সাংবাদিক বৈঠক করে সে কথাই ফের জানিয়ে গেলেন এআইসিসি’র মুখাপাত্র শাকিল আহমেদ।  

এ দিন প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীকে পাশে বসিয়ে শাকিল বলেন, ‘‘২০১৭ সালে ফ্রান্সের তৎকালীন প্রেসিডেন্টের বান্ধবীর সংস্থার সাথে রিলায়েন্সের সিনেমা প্রযোজনার বিষয়ে চুক্তি একটি হয়। ঠিক একই সময়ে রিলায়েন্স রাফালের বরাত পায়। তাই শুধু এটা ভারতের দুর্নীতি নয়, এটা ভারত ও ফ্রান্স দু’দেশে দুর্নীতি হয়েছে।’’ তাঁর দাবি, দীর্ঘ ৫৫ বছর ধরে কাজ করা সংস্থাকে বাতিল করে অম্বানী গোষ্ঠীর সংস্থাকে এই বরাত দেওয়া হয়েছিল। যার সঙ্গে দেশের সুরক্ষা, নিরাপত্ত্বা জুড়ে রয়েছে। তাই এটা শুধু দুর্নীতি নয়, দেশদ্রোহও বটে বলে তাঁর দাবি। তাঁর দাবি, “ রাহুল গাঁধি টুইট করে জয়েন্ট পার্লামেন্টারি কমিটির দাবি জানিয়েছেন। কিন্তু সরকার ভয়ে কমিটি গড়ছে না।” প্রধানমন্ত্রীর তাঁর বিমানে করে ফ্রান্সে কোন শিল্পপতি বন্ধুকে নিয়ে গিয়েছিলেন তা প্রকাশেরও দাবি জানান শাকিল। রাফাল ইস্যুতে দেশজুড়ে জেলা ও ব্লক স্তরে প্রতিবাদ হবে বলেও জানান। তিনি জানান, এআইসিসি সিদ্ধান্ত নিয়েছে দেশজুড়ে এমনই ১০০টি শহরে এ ব্যাপারে সাংবাদিক বৈঠক করে মানুষকে রাফাল-দুর্নীতির কথা জানাবে কংগ্রেস। এ দিন কলকাতায়, দক্ষিণ কলকাতা জেলা কংগ্রেস নিউ আলিপুরে এ ব্যাপারে বিক্ষোভ দেখায়। ছিলেন, সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্য এবং দক্ষিম কলকাতা জেলা কংগ্রেস সভাপতি তুলসী মুখোপাধ্যায়।