• নিজস্ব সংবাদদাতা
সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে

শিয়ালদহে ট্রেনে উঠতে গিয়ে মৃত্যু

death
প্ল্যাটফর্ম কেটে বার করতে হয় দেহ। —নিজস্ব চিত্র।

ব্রিগেড সমাবেশ থেকে ফেরার পথে  হাটে-বাজারে এক্সপ্রেসে ওঠার সময় ট্রেন এবং প্ল্যাটফর্মের মধ্যে ফাঁকা জায়গায় পড়ে গিয়ে শনিবার রাতে শিয়ালদহ স্টেশনে মৃত্যু হল এক প্রৌঢ়ের। বছর পঞ্চাশের ওই  ব্যক্তির নাম শেখ সুলেমান। তাঁর বাড়ি উত্তর দিনাজপুরের ডালখোলায়। গত বৃহস্পতিবার তিনি পরিচিতদের সঙ্গে কলকাতায় আসেন।

রেল সূত্রে খবর, এ দিন সন্ধেয় ৭টা ১৫ মিনিট নাগাদ শিয়ালদহ স্টেশনের ৯ এ প্ল্যাটফর্মে হাটে বাজারে এক্সপ্রেসে ওঠার সময় ওই দুর্ঘটনা ঘটে। তৃণমূলের ব্রিগেড 

ফেরত কর্মী সমর্থকদের উপস্থিতিতে এ দিন শিয়ালদহ স্টেশনের প্ল্যাটফর্মে অনান্য দিনের তুলনায় ভিড় কিছুটা বেশি ছিল।

 রেলের পক্ষ থেকে তাড়াহুড়ো এড়াতে এ দিন কিছুটা সময় আগেই প্ল্যাটফর্মে ট্রেন দেওয়া হচ্ছিল। রাত্রি ৮টা ১০ মিনিটে শিয়ালদহ থেকে কাটিহারগামী ওই ট্রেনটির ছেড়ে যাওয়ার কথা থাকলেও বেশ কিছুটা সময় আগেই ওই ট্রেন প্ল্যাটফর্মে দেওয়া হয়। সওয়া সাতটা নাগাদ ট্রেনটি প্ল্যাটফর্মে এসে পৌঁছতেই যাত্রীদের একাংশ তাড়াহুড়ো করে ট্রেনে ওঠার চেষ্টা করেন। ঠেলাঠেলির মধ্যে ইঞ্জিনের পরের কামরার সামনে ওই ব্যক্তি প্ল্যাটফর্মের ফাঁকের মধ্যে আচমকা পড়ে যান। ট্রেনটি তখনও  পুরোপুরি থামেনি বলে অভিযোগ। ওই ব্যক্তির দেহ ট্রেন এবং প্ল্যাটফর্মের ফাঁকের মধ্যে পড়ে ঘষটাতে থাকে। দেহটি কার্যত তালগোল  পাকিয়ে যায়। পরে প্ল্যাটফর্মের একাংশ ভেঙে ওই প্রৌঢ়ের দেহ উদ্ধার করা হয়। ঘটনার জেরে যাত্রীদের একাংশ বিক্ষোভ দেখান। পরে জিআরপি থানার পুলিশ  মৃতের দেহ ময়নাতদন্ত করতে পাঠায়। পরে ঘণ্টা খানেক দেরিতে ট্রেনটি কাটিহারের উদ্দেশে রওনা হয়। 

সবাই যা পড়ছেন

সব খবর প্রতি সকালে আপনার ইনবক্সে
আরও পড়ুন

সবাই যা পড়ছেন

আরও পড়ুন