রাজ্যসভায় পঞ্চম আসনে প্রার্থী দেবে তৃণমূল। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় নিজে এ কথা ঘোষণা করেছেন। কিন্তু সেই প্রার্থীকে জেতাতে বিরোধী-ঘর ভাঙতে হবে। তা না হলে তৃণমূলের ‘পঞ্চম’ প্রার্থীর জেতা মুশকিল।

ঘর ভাঙার খেলায় বুধবার ইন্ধন জুগিয়েছে পরিবহণ মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারীর মন্তব্য। বিধানসভার অধিবেশন কক্ষেই শুভেন্দু কংগ্রেসকে লক্ষ্য করে বলেন, ‘‘আগামী কাল (বৃহস্পতিবার) কান্দিতে যাব। কংগ্রেসের সর্বনাশ করব!’’ শুভেন্দুর এই মন্তব্যে কান্দির কংগ্রেস বিধায়ক অপূর্ব সরকারের তৃণমূল যোগ দেওয়া এখন শুধু সময়ের অপেক্ষা বলে মনে করা হচ্ছে। আজ অপূর্ব তৃণমূলে যোগ না দিন বা না দিন, তৃণমূলের পঞ্চম প্রার্থীকে তাঁদের মতো কয়েক জন যে ভোট দেবেন, তা প্রায় নিশ্চিত। ক’দিন আগেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের হাত ধরে তৃণমূলে যোগ দিয়েছেন ছাতনার আরএসপি বিধায়ক ধীরেন্দ্রনাথ লায়েক। কংগ্রেসেরও বেশ কয়েক জন বিধায়ক জোড়াফুলে পা বাড়িয়ে আছেন বলে অনেক দিন ধরেই গু়ঞ্জন। এ দিন অপূর্বকে জিজ্ঞাসা করা হলে ধোঁয়াশা করে বলেন, ‘‘হতেও পারে, আবার না-ও হতে পারে!’’