বর্ষার মরসুমে রেকর্ড গরম পড়ল কলকাতায়! গত ১০ বছরে জুলাই মাসে এতটা তাপমাত্রা বৃদ্ধি হয়নি। সোমবার কলকাতার সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩৭.৭ ডিগ্রি সেলসিয়াস। যা স্বাভাবিকের থেকে ৫ ডিগ্রি বেশি। এ দিন আর্দ্রতাজনিত অস্বস্তিও ছিল চরমে। শুধু গরম নয়, জুলাই মাসে কলকাতাতে বৃষ্টির ঘাটতিও চোখে পড়ার মতো। এখনই ৭২ শতাংশ বৃষ্টির ঘাটতি রেকর্ড হয়েছে।

 

এক দিকে যখন কলকাতা-সহ দক্ষিণবঙ্গের জেলাগুলিতে বৃষ্টির আকাল, তখন উত্তরবঙ্গ ভাসছে। তিস্তা, তোর্সা সহ পাহাড়ি নদীগুলিতে বিপদসীমার উপর দিয়ে বইছে জলস্তর। আগামী দু’দিন একই রকম ভাবে বৃষ্টি চলবে দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, কোচবিহার, আলিপুরদুয়ারে। পাহাড়ে লাগাতার বৃষ্টির কারণে ঘাটতি মিটেছে ঠিকই, কিন্তু অনবরত বৃষ্টিতে বিপর্যস্ত জনজীবন।

 

আলিপুর আবহাওয়া দফতরের অধিকর্তা গণেশ কুমার দাস বলেন, " গত ১০ বছরে জুলাই মাসে রেকর্ড গরম পড়ল কলকাতায়। রয়েছে বৃষ্টির ঘাটতিও।"

আরও পড়ুন : থানার সামনেই বোমাবাজি, দফায় দফায় সংঘর্ষ, ৩ সপ্তাহ পর ফের অশান্ত ভাটপাড়া

 

 

দক্ষিণবঙ্গের জেলাতে কবে ঝমঝমে বৃষ্টি নামবে তা স্পষ্ট করে বলতে পারছেন না আবহাওয়াবিদরা। এ দিন উত্তর ২৪ পরগনা, হুগলির কোনও কোনও এলাকায় ছিটেফোঁটা বৃষ্টি হয়েছে। কিন্তু তাতে বৃষ্টির ঘাটতি মেটার সম্ভাবনা নেই বললেই চলে। উত্তর ২৪ পরগনায় বৃষ্টির ঘাটতি রয়েছে ৫৯ শতাংশ। দক্ষিণ ২৪ পরগনায় ৫১, হাওড়ায় ৭৭, পশ্চিম মেদিনীপুরে ৩৯, হুগলিতে ৪২, নদীয়া ৫০ শতাংশ ঘাটতি রয়েছে। একই ভাবে দক্ষিণবঙ্গের অন্যান্য জেলাতেও বৃষ্টির ঘাটতি রয়েছে। 

 

আরও পড়ুন :বিধান মার্কেটে মন্ত্রীর নিদান, পাল্টা অবরোধ, হুমকিও