আগামী ২৭ মে উচ্চমাধ্যমিকের ফল প্রকাশ। তার পরেই কলেজে কলেজে ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হয়ে যাবে। গত বছরে ভর্তির সময় রাজ্যজুড়ে নৈরাজ্য তৈরি হয়েছিল। ঘুষ নেওয়ার অভিযোগ ওঠে ছাত্রনেতাদের বিরুদ্ধে। বিশৃঙ্খলা ঠেকাতে শেষ পর্যন্ত মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আসরে নামতে হয়।

এ বছর কলেজে ভর্তি নিয়ে যাতে বিশৃঙ্খলা তৈরি না হয়, সে কথা মাথায় রেখে ভর্তির নিয়মে বেশ কিছু পরিবর্তন আনা হয়েছে। সোমবার শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায় সব কলেজের অধ্যক্ষদের নিয়ে বৈঠক করেন। জানা গিয়েছে, এ বছর উচ্চমাধ্যমিক উত্তীর্ণরা অনলাইনে ভর্তির আবেদন করতে পারবেন। ফলে এই গরমে কলেজের বাইরে ছাত্রছাত্রীদের লাইনে দাঁড়াতে হবে না। প্রতিবারই অভিযোগ ওঠে, হেল্প ডেস্কের নাম করে পড়ুয়াদের কাছে ভর্তির নামে টাকা চাওয়া হয়। তাই এ বছর কোনও কলেজে ছাত্র সংগঠনগুলি হেল্প ডেস্ক করতে পারবে না।

ভর্তির টাকাও জমা করতে হবে অনলাইনে। মেধাতালিকার ভিত্তিতে ভর্তি প্রক্রিয়াসম্পন্ন হবে। নথিপত্র যাচাই হবে ক্লাস শুরুর পর। যদি দেখা যায়, কেউ ভুল নথি দিয়ে কলেজে ভর্তি হয়েছেন। তখন তাঁর ভর্তি বাতিল করা হবে। বিশৃঙ্খলা এবং দুর্নীতি রুখতেই এই পদক্ষেপ করা হচ্ছে বলে উচ্চ শিক্ষা সংসদ সূত্রে খবর।

আরও পড়ুন : আগামিকাল সকাল ১০টা থেকে মাধ্যমিকের ফল ওয়েবসাইটে

আরও পড়ুন : সন্তানকে জোর করে নিরামিষ খাওয়ালে এবার জেল হতে পারে